কাশ্মীরের শিশুদের মৌলবাদের শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে | বিশ্ব | DW | 17.01.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

কাশ্মীরের শিশুদের মৌলবাদের শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে

কাশ্মীরের শিশুরা মৌলবাদের শিক্ষা পাচ্ছে। সেনা ওই সমস্ত শিশুদের জন্য ক্যাম্প তৈরি করছে। ফের বিতর্কিত মন্তব্য ভারতীয় সামরিক প্রধানের।

ফের বিতর্কিত মন্তব্য করলেন ভারতের সামরিক বাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। দিল্লিতে এক সরকারি অনুষ্ঠানে তিনি বললেন, কাশ্মীরে ১০-১২ বছরের বাচ্চাদের মৌলবাদের পাঠ দেওয়া হচ্ছে। ওই সমস্ত বাচ্চাদের চিহ্নিত করে তাদের ফের মূলস্রোতে ফিরিয়ে আনার জন্য বিশেষ ক্যাম্পের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। শুধু তাই নয়, বিতর্কিত পেলেট গানের পক্ষেও যুক্তি সাজিয়েছেন রাওয়াত।

জেনারেল রাওয়াতের এই মন্তব্য ঘিরে দেশ জুড়ে বিতর্কের ঝড় উঠেছে। রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে নাগরিক সমাজ, অনেকেই এর বিরোধিতা করে বলেছেন, সেনাবাহিনীর প্রধানের মুখে এ ধরনের মন্তব্য আদৌ মানানসই নয়। এ ধরনের বিষয় নিয়ে তাঁর আদৌ কথা বলার এক্তিয়ার আছে কি না, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। সোশ্যাল নেটওর্কে অনেকে লিখেছেন, এ ভাবেই ক্রমশ হীরক রাজার দেশে পরিণত হচ্ছে ভারত। সত্যজিৎ রায়ের ছবি হীরক রাজার দেশে মগজাস্ত্রের কথা বলা হয়েছিল। যন্তরমন্তর ঘরে নিয়ে গিয়ে কৃষক, শ্রমিক, ছাত্রদের রাজার বাণী শেখানো হতো। কাশ্মীরে যে ক্যাম্পের কথা রাওয়াত বলেছেন, তা কি আসলে তেমনই কোনও ব্যাপার? প্রশ্ন উঠেছে। সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, সেনাবাহিনীর প্রধান এমন মন্তব্য করতে পারেন না। এটা তাঁর এক্তিয়ারে পরে না।

রাওয়াত বলেছেন, কাশ্মীরের সব চেয়ে বড় সমস্যা হল, সেখানে স্কুলে, কলেজে এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে মৌলবাদের শিক্ষা দেওয়া হয়। ছোট ছোট বাচ্চারা মৌলবাদী হয়ে যাচ্ছে। তেমনই বাচ্চাদের চিহ্নিত করে বিশেষ ক্যাম্পে নিয়ে গিয়ে শিক্ষা দেওয়ার কথা বলেছেন রাওয়াত। শুধু তাই নয়, রাওয়াত জানিয়েছেন, এই সমস্ত বাচ্চারাই পাথর ছোড়ার মতো 'গর্হিত' অপরাধের সঙ্গে জড়িত। ফলে পেলেট গান ব্যবহার করতেই হয়। তবে পেলেট গান পা লক্ষ্য করে চালানো হয়। এতে কোনও অন্যায় নেই।

কাশ্মীরে পেলেট গান ব্যবহার নিয়ে শুধু দেশের ভিতর নয়, আন্তর্জাতিক মহলেও সমালোচিত হয়েছে ভারত। পেলেটের আঘাতে শিশু সহ বহু মানুষের চোখ নষ্ট হয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ। তার পরেও রাওয়াতের এই মন্তব্য নতুন করে বিতর্কের ঝড় তুলে দিল।

এসজি/জিএইচ (দ্য হিন্দু, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন