কাবুলে বোমা হামলায় ৮ সাংবাদিকসহ ২৫ জন নিহত | বিশ্ব | DW | 30.04.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

আফগানিস্তান

কাবুলে বোমা হামলায় ৮ সাংবাদিকসহ ২৫ জন নিহত

আফগান রাজধানীতে সোমবার সকালে আত্মঘাতী জোড়া বোমা হামলায় আট সাংবাদিকসহ কমপক্ষে ২৫ জন নিহত হয়েছেন৷ পুলিশ জানিয়েছে, এদের মধ্যে একজন ফ্রান্সের বার্তা সংস্থা এএফপি'র চিত্রসাংবাদিক৷

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা হাশমত স্তানেকজাই বার্তা সংস্থা এপি’কে জানান, নিহতদের মধ্যে চারজন পুলিশ সদস্যও রয়েছেন৷ এছাড়া আহত হয়েছেন আরো ৪৫ জন৷ এ বছর এ নিয়ে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলসহ বেশ কয়েকটি জায়গায় বড় বড় হামলা হলো৷

এদিকে এই হামলার কয়েক ঘন্টা পর দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের কান্দাহার রাজ্যে আরেকটি আত্মঘাতী গাড়িবোমা হামলায় আরো ১১ শিশু মারা গেছে৷

তথাকথিত জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট সংশ্লিষ্ট একটি ওয়েবসাইটে ঘটনার দায় স্বীকার করা হয়েছে৷ আফগান গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সদরদপ্তরই তাদের লক্ষ্য বলে দাবি করেছে তারা৷

কাবুলের শাশ দারাক এলাকায় জোড়া বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে৷ এখানে আফগান গোয়েন্দা বিভাগের সদরদপ্তর ছাড়াও ন্যাটো সদরদপ্তর ও বেশ কয়েকটি দূতাবাস রয়েছে৷

পুলিশের তথ্যমতে, প্রথম আঘাতটি একটি মোটরবাইকে করে করা হয়েছে৷ দ্বিতীয়টি করা হয়েছে, প্রথমটি ঘটার পর যারা হামলায় জখম ব্যক্তিদের সাহায্য করতে বা সংবাদ সংগ্রহে এসেছিলেন তাদের ওপর৷ দ্বিতীয় হামলাকারী পায়ে হেঁটেই এসেছিলেন৷

সাংবাদিকদের মাঝে দাঁড়িয়ে দ্বিতীয় বোমাটি বিস্ফোরণ ঘটান দ্বিতীয় ব্যক্তি৷ পুলিশ বলছে, পরিষ্কারভাবেই সাংবাদিকদের টার্গেট করা হয়েছে৷

এএফপি'র কাবুলের প্রধান চিত্রসাংবাদিক শাহ মারাই নিহত সাংবাদিকদের একজন৷ দ্বিতীয় বোমার আঘাতেই তাঁর মৃত্যু হয়৷ তিনি প্রথম বোমা হামলার ছবি তুলতে গিয়েছিলেন৷

AFP-Fotograf Shah Marai gestorben

হামলায় এএফপি'র কাবুলের প্রধান চিত্রসাংবাদিক শাহ মারাই নিহত হয়েছেন

সাংবাদিকদের সংগঠন আফগান জার্নালিস্ট সেফটি কমিটি বলছে, মোট আটজন আফগান সাংবাদিক মারা গেছেন৷ আরো ছয় জন আহত হয়েছেন৷

ঘটনার সময় মাসুদা নামের এক নারী তাঁর স্বামীর সঙ্গে কাছাকাছিই ছিলেন৷ তাঁর স্বামী আহত হয়েছেন এবং তাঁকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে৷ তিনি এপি'কে বলেন, ‘‘প্রতিদিন আমরা আমাদের প্রিয়জন হারাচ্ছি, এবং এই সরকারের কেউ এসব হামলার দায়দায়িত্ব নিচ্ছেন না৷’’

আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি হামলার কঠোর নিন্দা করেছেন৷

মার্কিন দূতাবাস থেকেও বিবৃতি দিয়ে এই হামলার নিন্দা করা হয়েছে৷ বলা হয়েছে, এমন সময়ে সরকার ও জনগণের পাশে তারা থাকবে৷

এদিকে, বার্তা সংস্থা এপি বলছে, কান্দাহারের দামানে আরেক আত্মঘাতী গাড়িবোমা হামলায় ন্যাটোর একটি বহরকে লক্ষ্য করা হয়েছিল৷ কিন্তু লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে তা রাস্তার পাশে একটি মাদ্রাসার ১১ জন শিশুকে হত্যা করে৷

উৎসুক সেই শিশুরা তখন ন্যাটো বহরের চারপাশ ঘিরে মজা করছিল৷

গত সপ্তাহেই আইএস-এর এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৬০ জন নিহত হন৷ আহত হন আরো কমপক্ষে ১৩০ জন৷

জেডএ/এসিবি (এপি)

২৫ জানুয়ারির ছবিঘরটি দেখুন...

নির্বাচিত প্রতিবেদন