1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
বিশ্বকাপে ডেনমার্কের এই জার্সির রং কিছুটা ফিকে হবে।
বিশ্বকাপে ডেনমার্কের এই জার্সির রং কিছুটা ফিকে হবে। ছবি: Mads Claus Rasmussen/Ritzau Scanpix/picture alliance
সমাজডেনমার্ক

কাতারে 'প্রতিবাদের জার্সি' পরে খেলবে ডেনমার্ক

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

বিশ্বকাপে জার্সির রং হাল্কা করলো ডেনমার্ক। তারা কালো জার্সিও পরবে। কাতারে মানবাধিকারভঙ্গের প্রতিবাদে এই সিদ্ধান্ত।

https://p.dw.com/p/4HUZx

খেলাধুলোর পোশাক নির্মাতা সংস্থা হুমে জানিয়েছে, বিশ্বকাপে ডেনমার্কের জার্সির রং ফিকে হবে। তাছাড়া তৃতীয় জার্সিও থাকছে। তার রং কালো। আর কালো হলো শোকের রং। কাতারে মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রতিবাদে এই সিদ্ধান্ত বলে তারা জানিয়েছে।

ঘোষণার পরেই তীব্র প্রতিবাদ করেছে কাতার। 

সামাজিক মাধ্যমে ডেনমার্কের জার্সির দুইটি ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ডেনমার্কের চিরাচরিত লাল রংয়ের জার্সি এবার কিছুটা ফিকে হয়েছে। এমনকী কোম্পানির লোগো, ডেনিশ ফেডারেশনের এবং কিট প্রস্তুতকারকের লোগোও আগের থেকে ফিকে।

শুধু তাই নয় জার্সি প্রস্তুতকারক কোম্পানি জানিয়েছে, তারা একটি কালো জার্সিও তৈরি করেছে। এই কালো রং হলো শোকের রং।

সংস্থাটি জানিয়েছে, আমরা অবশ্যই ডেনমার্কের টিমকে সমর্থন জানাই। কিন্তু একইসঙ্গে এটা ভুলে গেলে চলবে না, এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে গিয়ে হাজারো মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। হুমে জানিয়েছে, কাতারের মানবাধিকার রেকর্ড এবং বিশ্বকাপের স্টেডিয়াম বানাতে গিয়ে তারা অভিবাসী শ্রমিকদের সঙ্গে কী রকম ব্যবহার করেছে সেবিষয়ে তারা আলাদা করে পরে বিবৃতি দিতে পারে।

কাতারের অভিযোগ

কাতারে বিশ্বকাপের আয়োজকদের শীর্ষ কমিটি দ্রুত একটি কড়া বিবৃতি দিয়েছে। তারা জানিয়েছে, হুমে যে দাবি করেছে, তা ঠিক নয়। স্টেডিয়াম বানানো এবং অন্য কাজে ৩০ হাজার শ্রমিকের নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখতে তারা দায়বদ্ধ।

কাতার জানিয়েছে, মাত্র তিনজন শ্রমিক কাজ করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় মারা গেছে। তাছাড়া আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনের দাবি মেনে তারা তাদের ব্যবস্থার সংস্কার করেছে বলেও দাবি করা হয়েছে। এর ফলে শ্রমিকদের জীবনধারণের মান উন্নত হয়েছে। ডেনমার্কের ফুটবল ফেডারেশনের(ডিবিইউ) সঙ্গেও তাদের খোলাখুলি কথা হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে।

কাতার জানিয়েছে, ডেনিশ ফুটবল সংস্থার(ডিবিইউ) সঙ্গে তাদের বিস্তারিত কথা হয়েছিল। ডিবিইউ যেন তা ওই পোশাক নির্মাতাদের জানায়।

বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলার সুযোগ পাওয়ার পর ডিবিইউ বলেছিল, তারা কাতারের মানবাধিকারের বিষয়টি গুরুত্ব দিচ্ছে। তারা যে মানবাধিকারের প্রতি দায়বদ্ধ সেই বার্তা দেয়া হবে। তারা প্রতিযোগিতার সঙ্গে যুক্ত বাণিজ্যিক ইভেন্টগুলিতেও কম অংশগ্রহণ করবে।

ইংল্যান্ড ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বলেছে, কাতার যেন মৃত শ্রমিকদের পরিবারকে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দেয়। যারা আহত হয়েছে, তাদেরও যেন ক্ষতিপূরণ দেয়া হয়।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ও হিউম্যান রাইটস ওয়াচও গত সপ্তাহে ফিফার কাছে আবেদন জানিয়ে বলেছে, তারা যেন কাতারের উপর চাপ সৃষ্টি করে।

জিএইচ/এসজি(এপি, এএফপি, রয়টার্স)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

পাকিস্তানে এক লিটার ডিজেল ২৬২ রুপি

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান