কাণ্ড যত দিল্লিতে! | খেলাধুলা | DW | 19.09.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

কাণ্ড যত দিল্লিতে!

আগামী মাসের প্রথমেই ভারতের রাজধানী নতুন দিল্লিতে শুরু হচ্ছে কমনওয়েলথ গেমস৷ আর এই আসরকে ঘিরে কত না কাণ্ড! এক কথায় বলা যায়, কাণ্ড যত দিল্লিতে! কমনওয়েলথ গেমস শুরু হবার আগে এবার আংটি বদলটা সেরে নিলেন দুইজন৷

default

লারা দত্ত এবং টেনিস তারকা মহেশ ভূপাথি

একজন গেমসের অন্যতম ফেভারিট টেনিস খেলোয়াড়৷ আর অপরজন অভিনেত্রী৷ খরবটা একটু চাপা ছিল৷

নানা কর্মকান্ডের মধ্যে মিডিয়ায় এটি বেশ নজর কেড়েছে সাধারণের৷ বলছিলাম, লারা দত্ত এবং টেনিস খেলোয়াড় মহেশ ভূপাথির কথা৷ দীর্ঘদিন যাবত দুই জনের প্রেম৷ এবার সুদূর নিউ ইয়র্কে বসে টুইটারে টুইট করে মহেশ ভূপাথি জানিয়ে দিলেন, গত সপ্তাহে তিনি এবং তাঁর প্রেমিকা লারা দত্ত আংটি বদলটা সেরে ফেলেছেন৷

অবশ্য সাবেক মিস ওয়ার্ল্ড লারা দত্তের সাথে অভিনেতা দিনো মরিয়ার প্রেমের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিলো বেশ কয়েকদিন ধরে৷ এবার সেই নিন্দুকদের মুখ এঁটে দিলেন তারা৷ বললেন, খামোশ!

Commonwealth Games Jawaharlal-Nehru-Stadion

প্রস্তুত দিল্লির মূল ভেন্যু

তবে এই খেলোয়াড়ের সঙ্গে পরিণয় বন্ধনে জড়িয়ে পড়ার প্রথমভাগের কাজ, মানে এই আংটি বদলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লারা৷ বলেছেন, মহেশ আমাকে বিয়ের প্রস্তাবটি দেয়, সে যখন ইউএস ওপেন টেনিসে অংশ নিতে নিউ ইর্য়কে ছিল, তখন৷ আমাকে রীতিমত অবাক করে দিয়েছিল সে৷ আমি তাঁর প্রস্তাব গ্রহণ করি৷

টেনিস তারকা মহেশ ভূপাথি সাবেক বিবাহিত৷ মানে এখন তালাকপ্রাপ্ত৷ কিছুদিন আগে স্ত্রীর সঙ্গে ঘটে তাঁর চূড়ান্ত বিচ্ছেদ৷ এরপরপরই লারা ও মহেশ দুজনেই বান্দ্রার পালি হিলের একটি ফ্ল্যাটে থাকতে শুরু করেন৷

যাহোক কমনওয়েলথ এর আরেক কাণ্ডের গল্প বলি৷ ভারতের মাটিতে খেলা হবে৷ নানা দেশের হাজার হাজার মানুষ আসবে৷ আর তারা একটু-আধটু ঘুরে বেড়াবেন শপিং করবেন, তাই নয় কী? আর বিষয়টি অনুধাবন করেই নতুন দিল্লির বিভিন্ন ট্যুর অপারেটর নানা প্যাকেজের ঘোষণা দিয়েছেন৷ যেখানে যেতে চান নিয়ে যাবে৷ ঘুরে দেখাবে ভারত৷ আর যারা কেনাকাটা করতে চান তাদের জন্য সুখবর৷ খেলা উপলক্ষ্যে শপিং মলগুলোর পক্ষ থেকে দেয়া হয়েছে মূল্যছাড়ের বিজ্ঞাপন৷ দিল্লির ব্যবসায়ী আর দোকান মালিকরা মিলে গেমসের শুরু থেকে ১২ দিনের জন্য আয়োজন করেছে এই বিক্রয় উৎসবের৷ তবে সব কিছুর আগে গেমস চলাকালে নিরাপত্তা রক্ষাটাই এখন এক নম্বর এজেণ্ডা বলে জানিয়েছে দিল্লির পুলিশ৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

ইন্টারনেট লিংক

বিজ্ঞাপন