কলকাতায় প্রথম বাংলাদেশী চলচ্চিত্র উৎসব | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 27.11.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

কলকাতায় প্রথম বাংলাদেশী চলচ্চিত্র উৎসব

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক ছায়াছবি নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় হতে যাচ্ছে তিনদিনের বাংলাদেশি চলচ্চিত্র উৎসব৷ এরপর আগামী বছর ত্রিপুরা রাজ্যে এবং নতুন দিল্লিতেও এই উৎসবের পরিকল্পনা রয়েছে৷

default

দুর্ঘটনায় অকালে প্রাণ হারিয়েছেন তারেক মাসুদ আর মিশুক মুনির

অনলাইন বার্তা সংস্থা বার্তা টোয়েন্টিফোর জানিয়েছে, আগামী ৯ থেকে ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত কলকাতার নন্দন প্রেক্ষাগৃহে এই চলচ্চিত্র উৎসব চলবে যাতে দেখানো হবে মোট ছয়টি ছায়াছবি৷ এর মধ্যে থাকছে হুমায়ুন আহমেদের ‘আগুনের পরশমণি', মোরশেদুল ইসলামের ‘আমার বন্ধু রাশেদ', ও ‘খেলাঘর' এবং এশিয়া সেরা নেটপ্যাক অ্যাওয়ার্ড পাওয়া নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চুর ‘গেরিলা'৷ এছাড়াও থাকছে প্রয়াত চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদের আন্তর্জাতিক খ্যাতি পাওয়া ছবি ‘মাটির ময়না'৷ কলকাতার নতুন প্রজন্মের কাছে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধপূর্ব এবং পরবর্তী প্রেক্ষাপট তুলে ধরতেই এই চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন করা হচ্ছে৷ বাংলাদেশের বিজয়ের মাসে অনুষ্ঠিতব্য এই উৎসব উপলক্ষে বাংলাদেশী চলচ্চিত্র শিল্পীদের একটি প্রতিনিধি দল পশ্চিমবঙ্গ সফর করবে বলে আশা করা হচ্ছে৷

এর আগে গত ১০ নভেম্বর কলকাতায় অনুষ্ঠিত হয় সপ্তাহব্যাপী আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব৷ সেখানে এবার বাংলাদেশের তিনটি ছবি দেখানো হয়৷ তবে সেটি বাদ দিলে এই প্রথমবারের মত বাংলাদেশের ছবি নিয়ে কলকাতায় প্রথম কোন একক চলচ্চিত্র উৎসব হতে যাচ্ছে৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন