কলকাতায় অমিত শাহের সফর, মৃত্যু বিজেপি কর্মীর | বিশ্ব | DW | 06.05.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

কলকাতায় অমিত শাহের সফর, মৃত্যু বিজেপি কর্মীর

অমিত শাহকে স্বাগত জানাবার জন্য বাইক নিয়ে বিমানবন্দরে যাওয়ার কথা ছিল অর্জুন চৌরাসিয়ার। সকালে তার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।

গত বিধানসভার নির্বাচনের পর এই প্রথমবার কলকাতায় আসছেন অমিত শাহ। কিন্তু তিনি কলকাতায় পা দেয়ার আগে কাশীপুরে বিজেপি-র যুব নেতার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হলো। ঠিক ছিল, শ-দুয়েক বাইক নিয়ে অর্জুন চৌরাসিয়া অমিত শাহকে অভ্যর্থনা জানাতে বিমানবন্দরে যাবেন। বিজেপি-র অভিযোগ, আত্মহত্যা নয়, অর্জুনকে খুন করা হয়েছে এবং তা তৃণমূল করেছে। আর তৃণমূলের দাবি, অর্জুন তাদের কর্মী ছিলেন।

এই পরিস্থিতিতে বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানাবার কর্মসূচি বাতিল করে দেন অমিত শাহ। তিনি অর্জুন চৌরাসিয়ার বাড়িতেও যাচ্ছেন। 

বিজেপি ও অর্জুনের পরিবারের দাবি, রাত পর্যন্ত তিনি স্বাগত জানানোর বিষয়টি নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন। পরে তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না।

শুক্রবার সকালে কাশীপুরের একটি ঘর থেকে তার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয়। কোনো সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়নি। অর্জুনের মা লছমিনা অভিযোগ করেছেন, তার ছেলে আত্মহত্যা করেননি। তাকে খুন করা হয়েছে। ছেলেকে অনেক দিন ধরেই তৃণমূল নজরে রেখেছিল। বাড়িছাড়া হয়েও থাকতে হয়েছে তাকে। আর বোন সুনীতা বলেছেন, ভাইকে যখন পাওয়া যাচ্ছিল না, তখন তারা কাশীপুর থানায় গিয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ তাদের কথা আমল দেয়নি।

পুলিশ সকালে মৃতদেহ উদ্ধার করতে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়ে। বেশ কয়েক ঘণ্টা তারা মৃতদেহ উদ্ধার করতে পারেনি। তার মা, বোন-সহ পরিবারের অনেকের দাবি, সিবিআইকে দিয়ে এই মৃত্যুর তদন্ত করতে হবে।

বিজেপি-র দাবি

রাজ্য বিজেপি টুইট করে বলেছে, যুব বিজেপি নেতা অর্জুনকে নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে। এভাবেই বিরোধী নেতাদের খুন করে তৃণমূল। গত বছর ৫৭ জন বিজেপি কর্মী ও নেতা খুন হয়েছেন।

বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা বলেছেন, কলকাতায় অমিত শাহের কর্মসূচি আছে। তাই তৃণমূল এই কাজ করেছে।

তৃণমূলের বিধায়ক অতীন ঘোষ দাবি করেছেন, অর্জুন তৃণমূলে ছিলেন। গত নির্বাচনে তার হয়ে কাজ করেছেন। বিজেপি অর্জুনকে নিয়ে মিথ্যা দাবি করছে।

তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন বলেছেন, এই অভিযোগ ভিত্তিহীন। পুলিশ আগে ঘটনার তদন্ত করুক।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বাড়িতে

শুক্রবার সন্ধ্যায় সাবেক ক্রিকেটার ও ভারতের ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বাড়িতে নৈশভোজ করার কথা অমিত শাহের। তিনি নিজেই সৌরভের বাড়িতে যেতে চেয়েছিলেন। তার আগে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে অমিত শাহের সরকারি কর্মসূচি আছে। সেখানে সৌরভের স্ত্রী ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়ের নাচার কথা।

গত বিধানসভা ভোটের আগে বিজেপি নেতারা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে বেশ কয়েকবার দেখা করেছেন বলে বিজেপির দাবি। যদিও সৌরভ এবিষয়ে কখনো মুখ খোলেননি। তারা চেয়েছিলেন, সৌরভ বিজেপি-তে যোগ দিয়ে দলকে নেতৃত্ব দিন। কিন্তু সৌরভ সেই প্রস্তাবে রাজি হননি। এখন আবার অমিত শাহের সৌরভের বাড়ি যাওয়া নিয়ে নতুন করে জল্পনা শুরু হয়েছে।

ক্রিকেট বোর্ডে অমিত শাহের ছেলে জয় শাহ এখন সচিবের দায়িত্ব পালন করছেন। সৌরভের সঙ্গে তার সম্পর্ক খুবই ভালো। রাজ্য বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেছেন, ''হঠাৎ ইচ্ছে হলো, তিনি কারো বাড়ি চলে গেলেন, সাধারণত রাজনীতিতে এরকম হয় না। আগে থেকে নিশ্চয়ই পরিকল্পনা করা ছিল।'' শমীকের কথায় জল্পনা আরো বেড়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ''অমিত শাহ সৌরভের বাড়িতে যেতে চেয়েছেন, এ তো ভালো কথা। সৌরভকে বলব, মিষ্টি দই খাওয়াতে।'' বস্তুত, কিছুদিন আগেই সৌরভ মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছিলেন। সেখানে এবিষয়ে তাদের কথা হয়েছে বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা। তবে মমতা বা সৌরভ এবিষয়ে কোনো কথা বলেননি।

জিএইচ/এসজি (পিটিআই, এএনআই, এনডিটিভি)