কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নুরুলকে বরণ করল ছাত্রলীগ | বিশ্ব | DW | 12.03.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নুরুলকে বরণ করল ছাত্রলীগ

ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হককে বরণ করে নিয়েছে ছাত্রলীগ৷ টিএসসি মিলনায়তনে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, ‘‘আমাদের সবার চাওয়া-পাওয়া নুরুল হক পূরণ করবে৷’’

নেতা-কর্মীদের নিয়ে মঙ্গলবার বিকেল সোয়া চারটায় ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন টিএসসির মিলনায়তনে প্রবেশ করেন৷ এ সময় সেখানে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী ও অন্যান্য দলের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন৷ এর আগে সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে ডাকসুর নবনির্বাচিত সহসভাপতি (ভিপি) মো: নুরুল হক ও তাঁর সহকর্মীদের ওপর হামলা করে ছাত্রলীগ৷ 

সোমবার হামলায় আহত হওয়া নতুন ভিপি নুরুল হক দুপুরে হাসপাতাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে যান৷ তিনি তাঁর সহকর্মীদের নিয়ে টিএসসিতে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন৷ এ সময় মিছিল নিয়ে ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতা-কর্মীরা ডাকসু নির্বাচনে কোটা আন্দোলনকারীদের প্যানেলের সদস্যদের ওপর হামলা করেন৷ ধাওয়া খেয়ে নুরুল ও অন্য সহকর্মীরা টিএসসির ভেতর ঢুকে পড়লে  ছাত্রলীগ সেখানে কয়েকজনকে মারধর করে৷

থমথমে পরিস্থিতি

ডাকসু নির্বাচনের পরদিন মঙ্গলবার ক্যাম্পাসে সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি একেবারেই কম৷ খুব একটা গাড়ি চলাচলও করছে না৷ কলা ভবনে কোনো কক্ষে ক্লাস হচ্ছে না৷ অনেক ক্লাসরুম বন্ধ, শিক্ষকরাও নেই৷ সব মিলিয়ে খানিকটা থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায়৷

ভিসির বাড়ির সামনে ছাত্রলীগের অবস্থান

ডাকসু নির্বাচনে ভিপি পদে পরাজয় মানতে না পেরে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা৷ কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের নেতা নুরুল হককে ভিপি পদে জয়ী করতে ‘অনেক বড় জালিয়াতি' হয়েছে অভিযোগ করে ওই পদে পুনর্নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন তাঁরা৷ ছাত্রলীগের কর্মীরা উপাচার্যের বাসভবনের সামনে গিয়ে সড়কে মানববন্ধন করেন এবং পরে সেখানে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন৷ কাছেই রাস্তার ওপর টায়ায় ও তেলের বোতল জ্বালিয়ে আগুন ধরিয়ে রেখেছেন তাঁরা৷ ভিসির বাসভবনের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশপথগুলোতে অবস্থান নিয়ে আছেন পুলিশ সদস্যরা৷

এদিকে বাম জোট, সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের দুই জোটসহ ভোট বর্জনকারী প্যানেলগুলোর ডাকে মঙ্গলবার সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস বর্জন কর্মসূচি চলছে৷

এর মধ্যে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা সকালে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে সমাবেশ করেছে৷ ‘সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ' ব্যানারে টিএসসিতে সমাবেশ করেছে স্বতন্ত্র প্যানেলের প্রার্থী-সমথর্কদের একাংশ৷

‘ডাকসুতে পুনঃভোটের সুযোগ নেই'

ডাকসু নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্যানেলগুলো অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগ এনে পুনঃভোটের দাবি জানালেও তা নাকচ করে দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান মঙ্গলবার দুপুরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘নির্বাচন হয়ে গেছে৷ ফলাফলও ঘোষণা করা হয়েছে৷ আমাদের গণতান্ত্রিক রীতিনীতি ও ডাকসুর গঠনতন্ত্র- এগুলো নিয়ে চলতে হবে৷''

আর উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ পুনঃভোটের দাবি সরাসরি নাকচ করে বলেছেন, ‘‘নির্বাচন নতুন করে হওয়ার কোনো সুযোগ আর নেই৷''

রোকেয়া হলের ঘটনায় নুরুল-লিটনদের বিরুদ্ধে মামলা

নির্বাচনের সময় রোকেয়া হলের প্রাধ্যক্ষ জিনাত হুদাকে লাঞ্ছিত করা ও ভাঙচুরের অভিযোগে ভিপি পদে বিজয়ী কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের নেতা নুরুল হকসহ সাতজনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা হয়েছে শাহবাগ থানায়৷

বাম জোটের ভিপি প্রার্থী ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দী, ছাত্রদলের জিএস প্রার্থী আনিসুর রহমান খন্দকার, ছাত্র ফেডারেশনের জিএস প্রার্থী উম্মে হাবীবা বেনজীর, রোকেয়া হল সংসদের ভিপি পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী শেখ মৌসুমী, ডাকসুর স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক পদে স্বতন্ত্র জোটের প্রার্থী শ্রবণা শফিক দীপ্তির নামও রয়েছে আসামির তালিকায়৷ শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশে ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, রোকেয়া হলের একজন ছাত্রী গতরাতে থানায় এসে মামলাটি দায়ের করেন৷ অজ্ঞাতপরিচয় আরও ৩০ থেকে ৪০ জনকে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে৷

সোমবার  ডাকসু নির্বাচন  চলাকালে রোকেয়া হলে ছাত্রলীগ বাদে অন্য প্যানেলের প্রার্থীরা অভিযোগ করেন, ভোটগ্রহণ শুরুর আগে তাদের খালি ব্যালট বাক্স দেখানো হয়নি৷ আর তিনটি ব্যালট বাক্সের হদিস তারা পাচ্ছেন না৷ রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক ফারহানা ফেরদৌসী জানান, বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ২ হাজার ৬০৭টি ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে যায়৷ তাঁর দাবি, ওইসব ব্যালটে কোনো চিহ্ন দেওয়া ছিল না, কারচুপির কোনো ঘটনাও সেখানে ঘটেনি৷ স্বতন্ত্র জোটের ভিপি প্রার্থী অরণি সেমন্তি খান সাংবাদিকদের বলেন, নুরুলসহ অন্তত চারজনের ওপর রোকেয়া হলে হামলা করা হয়৷

নির্বাচনের দিন

অনিয়মের নানা অভিযোগ এবং অধিকাংশ প্যানেলের প্রার্থীদের বর্জনের মধ্যে দীর্ঘদিন পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয়  ছাত্র সংসদ-ডাকসু ও হল সংসদগুলোর নির্বাচন হয় সোমবার৷ ডাকসুতে ভিপি ছাড়া সবগুলো পদেই জয়ী হন সরকার সমর্থক সংগঠন ছাত্রলীগের প্রার্থীরা৷ ভিপি পদে জয়ী হন কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের মোর্চা বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের প্রার্থী মো: নুরুল হক৷

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান সোমবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে সিনেট ভবনে এই ফলাফল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে বিক্ষোভ শুরু করেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা৷ নুরুলকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান তাঁরা৷

এপিবি/জেডএইচ (সূত্র: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম, প্রথম আলো)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন