করোনা ভাইরাস নিয়ে তদন্তের নির্দেশ বাইডেনের | বিশ্ব | DW | 27.05.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অ্যামেরিকা

করোনা ভাইরাস নিয়ে তদন্তের নির্দেশ বাইডেনের

করোনা ভাইরাস কীভাবে এল, তা নিয়ে তদন্ত করে দেখার নির্দেশ দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

তিন মাসের মধ্যে তদন্তের রিপোর্ট চান বাইডেন।

তিন মাসের মধ্যে তদন্তের রিপোর্ট চান বাইডেন।

করোনার উৎপত্তি নিয়ে বাইডেন আরো গভীর তদন্ত চান। তিনি জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাস কোনো প্রাণীর কাছ থেকে এসেছে, এটা যেমন নিশ্চিতভাবে প্রমাণিত হয়নি, আবার গবেষণাগার থেকে লিক হয়েছে, তারও পুরো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

এক বিবৃতিতে বাইডেন জানিয়েছেন, মার্কিন গোয়েন্দারা এই দুইটি তত্ত্বের মধ্যে বিভক্ত। কিন্তু কোনো একটি তত্ত্ব মেনে নেয়ার মতো যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণ নেই। দুইটি গোয়েন্দা সংস্থার মতে, এই ভাইরাস প্রাণীর থেকে এসেছে। একটি সংস্থা মনে করে, গবেষণাগার থেকে লিক হয়েছে। তার বক্তব্য, এই তদন্তের কাজে মার্কিন জাতীয় গবেষণাগারগুলির উচিত গোয়েন্দা সংস্থাকে সাহায্য করা। আর চীনের উচিত আন্তর্জাতিক তদন্তে সাহায্য করা।

বাইডেনের প্রত্যাশা, ৯০ দিনের মধ্যে তদন্তের ফলাফল হাতে এসে যাবে।

সন্দেহ প্রবল

অ্যামেরিকায় বেশ কিছু প্রশাসনিক কর্মকর্তার সন্দেহ, চীনের ল্যাব থেকেই করোনা ভাইরাস লিক হয়েছিল। ট্রাম্পের আমলে হোয়াইট হাউসের করোনা বিষয়ক পরামর্শদাতা ফাউচি বলেছেন, তিনি ও অন্য অনেক বিজ্ঞানী মনে করেন, স্বাভাবিকভাবেই এই ভাইরাস জন্ম নিয়েছে, কিন্তু কেউই পুরোপুরি নিশ্চিত নন। অনেকের মনে আশঙ্কা রয়েছে, অনেকে অনুমান করছেন। কেউই নিশ্চিত নন।

বাইডেনের প্রবীণ পরামর্শদাতা অ্যান্ডি স্ল্যাভিট মঙ্গলবার বলেছেন, ''আমরা চীনের কাছ থেকে স্বচ্ছ্বতা চাই। আমরা চাই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও তদন্তে সাহায্য করুক।''

বাইডেনের এই তদন্তের ঘোষণা এসেছে সম্প্রতি একটি রিপোর্ট প্রকাশের পর। উহানের ভাইরোলজি ল্যাবের কিছু গবেষক বলেছেন, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের একমাস আগে থেকে সম্ভবত করোনা শুরু হয়ে গিয়েছিল, যখন তাদের মধ্যে কয়েকজন অসুস্থ হয়ে পড়েন।

চীনের সমালোচনা

অ্যামেরিকায় চীনের রাষ্ট্রদূত বিবৃতি দিয়ে বলেছেন, ল্যাব থেকে ভাইরাস লিকের কথা বলেছেন, তা ষড়যন্ত্র তত্ত্ব ছাড়া আর কিছ নয়।

কিছু রাজনৈতিক শক্তি এই অতিমারির ভাইরাস নিয়ে চীনের ঘাড়ে দোষ চাপাতে চায়। এটা পুরোপুরি দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তদন্ত

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি নিয়ে তদন্ত করেছে। তারা চীনেও গিয়েছিল। কিন্তু কোন প্রাণী থেকে এই ভাইরাস এসেছে, তা চিহ্নিত করতে পারেনি। তবে তাদের মতে, ল্যাব থেকে লিক হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।

প্রেসিডেন্ট থাকার সময় ডনাল্ড ট্রাম্প বারবার করোনা ভাইরাস নিয়ে চীনের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছিলেন। তিনি এটাও বলেছিলেন, এই ভাইরাস নিয়ে চীনের বিরুদ্ধে অনেক তথ্যপ্রমাণ তার কাছে আছে। সেসময় একটা অভিযোগ উঠেছিল, এই ভাইরাস চীনের গবেষণাগারে তৈরি করা হয়েছে। যদিও ট্রাম্প তেমন কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি।

জিএইচ/এসজি(এপি, এএফপি, রয়টার্স)

 

সংশ্লিষ্ট বিষয়