করোনা ভাইরাসে আতঙ্কে ইটালি, দক্ষিণ কোরিয়ায় ‘রেড এলার্ট’ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 23.02.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

করোনা ভাইরাস

করোনা ভাইরাসে আতঙ্কে ইটালি, দক্ষিণ কোরিয়ায় ‘রেড এলার্ট’

ইটালিতে দুইদিনে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে করোনা ভাইরাসে৷ আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ জন ছাড়িয়েছে৷ রোগীর সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে দক্ষিণ কোরিয়াতেও৷ জারি করা হয়েছে সর্বোচ্চ সতর্কতা৷

দুই নাগরিকের মৃত্যুতে করোনা ভাইরাস ঠেকাতে নড়েচড়ে বসেছে ইটালির সরকার৷ বেশ কয়েকটি শহরকে বিচ্ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে৷ বাতিল করা হয়েছে ভেনিসের বিখ্যাত কার্নিভাল৷

এখন পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ জন ছাড়িয়েছে৷ এর মধ্যে শুধু লোম্বার্দি অঞ্চলেই ৮৯ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে৷ সেখানকার একটি শহর কোডোনিওতে শনিবার ৭৫ বছর বয়সি একজন নারীর মৃত্যু হয়েছে৷ তার আগের দিন ভেনিতোতে মারা গেছেন ৭৮ বছর বয়সি একজন পুরুষ৷ 

উত্তরাঞ্চলের প্রায় এক ডজন শহরের পঞ্চাশ হাজারের বেশি মানুষকে ঘরে অবস্থানের অনুরোধ করেছে কর্তৃপক্ষ৷ সেখানকার রাস্তাঘাট এরইমধ্যে ফাঁকা হয়ে গেছে, বন্ধ করে দেয়া হয়েছে সরকারি ভবন৷ ভেনিসের রোববারের কার্নিভালের আয়োজনও বন্ধ করা হয়েছে৷

Südkorea Chuncheon Moon Jae-in verhängt höchste Alarmstufe wegen Coronavirus

দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রাণ হারিয়েছেন পাঁচজন৷

এর আগে মিলানের কাছের কোডোনিওতে সর্বপ্রথম এই রোগে আক্রান্ত ৩৮ বছর বয়সি একজনকে শনাক্ত করা হয়েছিল৷ তিনি গত ২১ জানুয়ারি চীন থেকে আসা একজনের সংস্পর্শে এসেছিলেন বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ৷ 

এদিকে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে দক্ষিণ কোরিয়ায় সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছেন প্রেসিডেন্ট মুন জে ইন৷ তিনজনের মৃত্যু ও ১৬৯ জন নতুন করে আক্রান্ত হওয়ার পর রোববার তিনি এই ঘোষণা দিয়েছেন৷ এনিয়ে দেশটিতে ৬০২ জন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে৷ এর মধ্যে শুক্রবার থেকে শনিবারের মধ্যে রোগীর সংখ্যা বেড়েছে দ্বিগুণ৷ সেখানে এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন পাঁচজন৷ চীনের বাইরে এই দেশটিতেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে সবচেয়ে বেশি৷

অন্যদিকে চীনের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ ৬৪৮ জন নতুন আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করেছে৷ রবিবার ৯৭ জনের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে দেশটিতে করোনা ভাইরাসে প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৪৪২ জনে৷

এফএস/এআই (এপি, এফপি, ডিপিএ, রয়টার্স) 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন