করোনা-বিক্ষোভ, রণক্ষেত্র ব্যাংকক | বিশ্ব | DW | 11.08.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

থাইল্যান্ড

করোনা-বিক্ষোভ, রণক্ষেত্র ব্যাংকক

রাজতন্ত্রের সংস্কারের দাবিতে ছাত্র আন্দোলনের বর্ষপূর্তিতে আবার বিক্ষোভে উত্তাল ব্যাংকক। এবার করোনা নিয়ে।

রণক্ষেত্র ব্যাংককের ছবি।

রণক্ষেত্র ব্যাংককের ছবি।

রণক্ষেত্র ব্যাংকক। ছাত্রদের বিক্ষোভ। তা থামাতে পুলিশের লাঠি, জলকামান, কাঁদানে গ্যাস ও রবার বুলেট। সব মিলিয়ে চারদিনের মধ্যে দ্বিতীয় বিক্ষোভে উত্তাল ব্যাংকক।

তবে এবার রাজনৈতিক সংস্কারের পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতি সামলানোর ক্ষেত্রে ব্যর্থতার অভিযোগ করে রাস্তায় নেমেছিলেন বিক্ষোভকারীরা।

ছাত্রবিক্ষোভের এক বছর

এক বছর আগে রাজতন্ত্রের সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছিলেন ছাত্ররা। তার বর্ষপূর্তিতে পুলিশ ও রাজতন্ত্রের সমর্থকদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হলো।

Protest gegen die COVID-19-Pandemie in Bangkok

বিক্ষোভ থামাতে রাস্তায় নেমেছিল প্রচুর পুলিশ।

মঙ্গলবার বিক্ষোভকারীরা গাড়ি ও মোটরবাইকে করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তাই তাদের বলা হচ্ছে, 'কার মব'। করোনা নিয়ে যে কড়াকড়ি করেছে প্রশাসন তার বিরুদ্ধে তারা প্রতিবাদ জানিয়েছেন। সোচ্চার হয়েছেন করোনা মোকাবিলায় সরকারের ব্যর্থতা নিয়ে। 

কিছু বিক্ষোভকারী পাথর ছুড়েছেন। দাঙ্গাবিরোধী পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়েছে। দুইটি ট্র্যাফিক পুলিশের বুথ জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে।

কেন এই প্রতিবাদ

সম্প্রতি থাইল্যান্ডে করোনার প্রকোপ বেড়েছে। খুব কম মানুষ এখনো পর্যন্ত ভ্যাকসিন পেয়েছেন। প্রতিদিন প্রায় ২০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। কড়াকড়ির জন্য অনেক দোকান-পাট বন্ধ। মানুষের রোজগারে টান পড়েছে।

তবে এক বছর আগে রাজতন্ত্রের সংস্কার ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতিবাদের দাবিতে রাস্তায় নেমেছিলেন হাজার হাজার ছাত্র। সেই বিক্ষোভের বর্ষপূর্তি হলো। তাই মঙ্গলবারের বিক্ষোভ অন্য মাত্রা পেয়েছে।

বিক্ষোভকারী ছাত্র বেঞ্জা আপান বলেছেন, ''সরকার এখনো ক্ষমতাসীনদের সব সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে। সাধারণ মানুষ অসুস্থ হচ্ছেন। মারা যাচ্ছেন। কিন্তু সরকার তাদের সাহায্য করছে না।''

জিএইচ/এসজি(এএফপি, এপি)