করোনায় মৃত্যু ১০ লাখ ছাড়ালো | বিশ্ব | DW | 29.09.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

করোনায় মৃত্যু ১০ লাখ ছাড়ালো

বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা দশ লাখ ছাড়ালো। ফ্রান্স, নেদারল্যান্ডস সহ ইউরোপের দেশগুলি আবার কড়া ব্যবস্থা চালু করেছে। জার্মানিও কড়াকড়ি চালু করার কথা ভাবছে।

জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির হিসাব হলো, মঙ্গলবারই করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা দশ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। গত ফেব্রুয়ারিতে চীনে যখন করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা কমছিল, তখন কিছু বিশেষজ্ঞ দাবি করেছিলেন, করোনা তার শীর্ষে পৌঁছেছে। এ বার তার প্রকোপ কমতে থাকবে। কিন্তু তাঁদের আশা দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। করোনার গ্রাফ কখনো কমেছে, কখনো বেড়েছে। গোটা বিশ্বে তা ছড়িয়েছে।

সব চেয়ে বেশি লোক মারা গেছেন অ্যামেরিকায়। দুই লাখেরও বেশি। তরপর আছে ব্রাজিল, ভারত, মেক্সিকো ও যুক্তরাজ্য।

জার্মানির আশঙ্কা

করোনার প্রকোপ আবার বাড়তে থাকায় উদ্বিগ্ন জার্মানির চ্যান্সেলার আঙ্গেলা ম্যার্কেল। তিনি বিভিন্ন স্টেটের নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন। সংবাদসংস্থা ডিপিএ ও একটি জার্মান সংবাদপত্র জানাচ্ছে, সেখানে নেয়া খসড়া প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ঘরোয়া পার্টিতে ২৫ জন ও বাইরের পার্টিতে ৫০ জনের বেশি থাকতে পারবেন না এমন নিয়ম চালু করা হতে পারে। মদ বিক্রির সময়সীমা কম করার কথাও ভাবা হচ্ছে। তবে এই সব কড়াকড়ি সেই সব শহরে চালু করা হবে, যেখানে এক লাখের মধ্যে ৫০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

সোমবার জার্মানিতে এক হাজার ১৯২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন তিনজন। আশঙ্কা করা হচ্ছে, কড়াকড়ি না করলে বড়দিনের সময় দিনে প্রায় ২০ হাজার জন করোনায় আক্রান্ত হবেন।

ফ্রান্সে কড়াকড়ি শুরু

ফ্রান্সের দশটি শহরে ইতিমধ্যেই কড়াকড়ি চালু করা হয়েছে। জিম বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। দশজনের বেশি লোকের জমায়েত বন্ধ। রাত দশটার পর বার বন্ধ করে দিতে হচ্ছে। এ নিয়ে বিক্ষোভও দেখিয়েছেন সাধারণ মানুষ। কিন্তু প্রেসিডেন্ট মাক্রোঁ বলেছেন, করোনা পরিস্থিতি দেখেই এই কড়াকড়ি চালু করতে হয়েছে।

নেদারল্যান্ডসেও কড়াকড়ি শুরু। বার ও রেস্তোরাঁ রাত দশটার বেশি খুলে রাখা যাবে না। বাড়িতে তিনজনের বেশি অতিথি আসতে পারবেন না। জরুরি দরকার ছাড়া মানুষকে বাইরে বেরতেও মানা করা হয়েছে। ফুটবল সহ অন্য খেলাধুলো খালি স্টেডিয়ামেই হবে বলে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

ইংল্যান্ডে কোভিড পজিটিভ হওয়ার পরও কেউ যদি বাড়ি থেকে বের হন তাহলে তাঁকে এক হাজার পাউন্ড জরিমানা দিতে হবে বলে সরকার জানিয়েছে। একাধিকবার এই অপরাধ করলে জরিমানার পরিমাণ হবে দশ হাজার পাউন্ড।

জিএইচ/এসজি(এপি, এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

বিজ্ঞাপন