করোনার মৃদু লক্ষণেও মস্তিস্কের মারাত্মক ক্ষতি! | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 11.07.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

করোনার মৃদু লক্ষণেও মস্তিস্কের মারাত্মক ক্ষতি!

আক্রান্তদের মস্তিস্ক আর কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রে মারাত্মক প্রভাব ফেলছে কোভিড-১৯, যা রোগীদের সাইকোসিস, পক্ষাঘাত এবং স্ট্রোকের কারণ হতে পারে৷ অনেক ক্ষেত্রে এই সমস্যাগুলো ধরা পড়ে শেষ পর্যায়ে৷

করোনা ভাইরাস মানুষের ফুসফুস, শ্বাসনালী থেকে শুরু করে শরীরের অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের ক্ষতি করে, এমন প্রমাণ আগেই পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা৷ যার মধ্যে এমনকি হৃদযন্ত্র, স্নায়ু, কিডনি এবং ত্বকও আছে৷

এখানেই শেষ নয়৷ ব্রিটিশ স্নায়ু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনায় মস্তিস্কেরও বড় ধরনের ক্ষতি হয়৷ যেসব রোগীর মৃদু লক্ষণ থাকে বা যারা সেরে ওঠেন, তাদের ক্ষেত্রেও সমস্যাটি রয়ে যায়৷ সেটি অনেক ক্ষেত্রে দেরিতে ধরা পড়ে বা কোনো কোনো ক্ষেত্রে ধরাই পড়ে না৷ এই গবেষণাটি ‘ব্রেইন' নামের একটি জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে৷ ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের স্নায়ু বিশেষজ্ঞরা এজন্য ব্রিটেনের ৪০ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর উপর পরীক্ষা চালিয়েছেন৷

গবেষণায় দেখা গেছে, ১২ জনই কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের প্রদাহে ভুগেছেন৷ ১০ জন মস্তিস্কের ট্রানসিয়েন্ট এনসেফেলোপাথি রোগে, আটজনের স্ট্রোক এবং আরো আটজন পেরিফেরাল স্নায়ু সমস্যায় আক্রান্ত ছিলেন, যা পক্ষাঘাত এবং পাঁচভাগ ক্ষেত্রে মৃত্যুর কারণ হয়৷

কোভিড ১৯-এর মতো মস্তিস্কে কোনো ভাইরাসের এমন অতর্কিত হামলা বিজ্ঞানীরা এর আগে দেখেননি, বলেছেন গবেষক দলের প্রধান ডা. মাইকেল জান্ডি৷ বিশেষ করে, মৃদু লক্ষণেও রোগীদের মস্তিস্কের এমন মারাত্মক ক্ষতি হওয়া বিরল বলে উল্লেখ করেছেন তিনি৷

কোনো কোনো রোগীর ক্ষেত্রে কোভিড-১৯ দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতির ছাপ রেখে যায়৷ অনেকে সেরে ওঠার পরও শ্বাসকষ্ট এবং দীর্ঘ ক্লান্তিতে ভোগেন৷ অসাড়তা,  দুর্বলতা আর স্মৃতি সংক্রান্ত জটিলতাও দেখা গেছে বাকিদের ক্ষেত্রে৷ তবে মস্তিস্কের অসুখে দীর্ঘমেয়াদে কী ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে সে বিষয়ে গবেষকরা এখনো নিশ্চিত হতে পারেননি৷

আলেক্সান্ডার ফ্রয়েন্ড/এফএস

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন