করোনার বিরুদ্ধে যক্ষ্মার টিকা কি কার্যকর? | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 03.04.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্র

করোনার বিরুদ্ধে যক্ষ্মার টিকা কি কার্যকর?

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা একটি গবেষণা শেষ করেছেন৷তাঁরা জানতে পেরেছেন, যে দেশগুলোতে যক্ষ্মার টিকা দেয়া বাধ্যতামূলক, সেসব দেশে করোনা ভাইরাসে মৃত্যু কম হচ্ছে৷

নিউ ইয়র্ক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলোজি (এনওয়াইআইটি)-র গবেষকরা বলছেন, করোনায় সবচেয়ে বেশি (১৩,৯১৫ জন) মানুষ মারা যাওয়া ইটালিতে কখনো সার্বজনীনভাবে যক্ষার টিকা (বিসিজি) দেয়া হয়নি৷সেখানে শুধুমাত্র যাঁদের জীবন ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনা করা হয় তাঁদের এই টিকা দেয়া হয়৷

সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্তের দেশ যুক্তরাষ্ট্রেও (২,৪৫,৫৭৩ জন) ইটালির মতোই ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনা করে বিসিজি টিকা দেয়া হয়

এনওয়াইআইটির গবেষণাটি এখনো প্রকাশ করা হয়নি৷অন্য গবেষকদের পর্যালোচনার জন্য স্বাস্থ্য বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে সেটি রাখা হয়েছে৷

যক্ষ্মার বিরুদ্ধে লড়তে ১৯২০-এর দশকে বিসিজি টিকা আবিষ্কার করা হয়েছিল৷বর্তমানে বিশ্বের ১৩ কোটির বেশি শিশুকে প্রতিবছর বিসিজি টিকা দেয়া হচ্ছে৷

ভিডিও দেখুন 03:10

করোনাবিরোধী যুদ্ধে বিজ্ঞান

সাধারণত একটি টিকা একটি নির্দিষ্ট প্যাথোজেনের বিরুদ্ধে কার্যকর হয়ে থাকে৷ অর্থাৎ কাউকে কোনো রোগের টিকা দিলে সেটি শুধু নির্দিষ্ট ঐ রোগের বিরুদ্ধে শরীরে প্রতিরোধক্ষমতা গড়ে তোলে, যাকে বলে ‘অ্যাডাপ্টিভ ইমিউন সিস্টেম’৷

কিন্তু অনেক বিজ্ঞানী মনে করছেন, বিসিজি টিকা হয়ত এর চেয়ে আরেকটু বেশি কার্যকর৷তাঁদের ধারণা, এই টিকা হয়ত যক্ষ্মার জন্য দায়ী ব্যাক্টেরিয়ার বিরুদ্ধে কাজ করার পাশাপাশি ব্যাক্তির ‘ইনেট ইমিউন সিস্টেম'ও শক্তিশালী করতে পারে৷ এটি সেই ইমিউন সিস্টেম, যা শরীরে কোনো ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে মেরে ফেলার চেষ্টা করে৷

এ কারণে অস্ট্রেলিয়া, জার্মানি, যুক্তরাজ্য ও নেদারল্যান্ডসে করোনা মোকাবিলায় বিসিজি টিকা কতখানি কার্যকর তা জানার চেষ্টা চলছে৷এই টিকা  করোনা আক্রান্ত রোগীর শ্বাসপ্রশ্বাসজনিত লক্ষণ কমাতে পারে কিনা তা জানতে চাইছেন বিজ্ঞানীরা৷

অস্ট্রেলিয়ার প্রায় চার হাজার হাসপাতাল কর্মীর উপর এই টিকার কার্যকারিতা পরীক্ষা করা হবে৷

বিসিজি টিকার কার্যকারিতা জানতে কয়েক মাস লেগে যাবে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা৷

জেডএইচ/এসিবি (রয়টার্স, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন