করোনাকে জয় করলেন ৯৯ বছর বয়সি দাদি | বিশ্ব | DW | 23.10.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

করোনা মহামারি

করোনাকে জয় করলেন ৯৯ বছর বয়সি দাদি

৯৯ বছর বয়সি ফ্লোরেন্টিনা করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন৷ করোনার ভয়াল থাবায় তাঁর দীর্ঘ জীবনের প্রদীপ নিভে যাবে এমন আশঙ্কাই ছিল পরিবারের৷ কিন্তু না, সবাইকে অবাক করে তিনি সুস্থ হয়ে উঠেছেন, এখন নাতির সাথে ট্যাবলেটে গেম খেলছেন৷

সেপ্টেম্বর মাসে স্পেনে ফ্লোরেন্টিনা মার্টিন নামে ৯৯ বছর বয়সি এক বৃদ্ধা করোনা আক্রান্ত হন৷ দাদি করোনার কবল থেকে ফিরে আসবেন কিনা তা নিয়ে ভীষণ শঙ্কিত ছিলেন তাঁর নাতনি ভ্যালি৷

ভ্যালি জানান, তারা কেউ যখন মাস্ক পরেননি, তখনই হয়তো তার দাদি সংক্রমিত হয়েছেন এবং তার কিছুদিন পর দাদি দূর্বল বোধ করতে থাকেন৷ যদিও বৃদ্ধার মধ্যে করোনার তেমন কোন লক্ষ্মণ দেখা যায়নি৷ দাদি মার্টিনের ছোট বেলা থেকেই শ্বাসকষ্টের সমস্যা ছিলো, যা করোনা ভাইরাসের কারণে আরো বেড়ে যায়৷ পরিবার, নার্স, কুকুর এবং সকলের সহযোগিতায় মাদ্রিদের বাসিন্দা ৯৯ বছর বয়সি মার্টিন করোনাকে জয় করে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে এসেছেন৷ তিনি এখন আবার তার প্রিয় টিভি অনুষ্ঠান দেখছেন এবং পাঁচ বছর বয়সি প্রপৌত্র পেড্রোর সাথে ট্যাবলেটে গেম খেলছেন!

ফ্লোরেন্টিনা মার্টিন জানান, তিনি এখন বেশ ভালো আছেন৷ নাতনি ভ্যালি পেশায় বায়োলজিস্ট৷ ভ্যালি দাদিকে দেখতে এলে দাদির মাস্ক পরার দিকে বিশেষ গুরুত্ব দেন৷ তিনি নিজেও এতে স্বস্তি বোধ করেন৷

স্পেনে প্রায় এক মিলিয়ন করোনা সংক্রমণ রেকর্ড করা হয়েছে, যা পশ্চিম ইউরোপের মধ্যে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি৷ করোনা ভাইরাসের কারণে স্পেনে ৩৪ হাজার মানুষ মারা গেছেন, যাদের বেশিরভাগেরই বয়স ছিলো ৮০ বছরের বেশি৷

এনএস/এসিবি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন