করোনায় অর্থনীতির ক্ষতি বাড়িয়েছে শিশুমৃত্যু | বিশ্ব | DW | 25.08.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

করোনায় অর্থনীতির ক্ষতি বাড়িয়েছে শিশুমৃত্যু

বিশ্বব্যাংকের এক গবেষণা বলছে, করোনাকালে শিশুমৃত্যু বেড়েছে৷ তবে মৃত্যুর কারণ ভেঙে পড়া অর্থনীতি৷ গবেষকরা বলছেন, সারা বিশ্বে অন্তত দু লাখ ৬৭ লাখ শিশুর মৃত্যুতে ভূমিকা রেখেছে মা-বাবার অর্থনৈতিক দুরবস্থ৷

মঙ্গলবার এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালে৷ সেখানে বলা হয়েছে, বিশ্ব ব্যাংকের গবেষকরা দেখতে চেয়েছিলেন শিশুদের দেহে করোনার সরাসরি প্রভাব কম হলেও করোনাকালে শিশুমৃত্যু কমেছে কিনা৷ এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়েই জানা গেছে, জনগণকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে দূরে রাখতে কঠোর লকডাউন দিলেও অনেক দেশ নাগরিকদের পর্যাপ্ত সামাজিক সুরক্ষা দিতে পারেনি, আর সেরকম দেশগুলোতেই শিশুমৃত্যু বেড়েছে আশঙ্কাজনক হারে৷

বিশ্বব্যাংকের গবেষকদল ১২৮টি দেশের তথ্য সংগ্রহ করে দেখেছেন সেসব দেশে ২০২০ সালে শিশুমৃত্যু যেমনটি অনুমান করা হয়েছিল তার চেয়ে অন্তত সাত ভাগ বেড়েছে৷ সবচেয়ে বেশি বেড়েছে দক্ষিণ এশিয়ার সাতটি দেশে৷

সেই সাত দেশের মধ্যে আবার সবচেয়ে বেশি বেড়েছে ভারতে৷ এর কারণও ব্যাখ্যা করেছেন গবেষকরা৷ তাদের মতে, দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় দেশ ভারত জনসংখ্যার দিক থেকেও বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম, সে কারণে ২০২০ সালে তাদের অর্থনীতি ১৭.৩ ভাগ সংকুচিত হয়েছে৷ এর প্রভাব নিম্ন আয়ের মানুষদের ওপর বেশি পড়েছে বলে সেই শ্রেণির মানুষদের পরিবারে শিশুদের জীবনপ্রদীপও এত তাড়াতাড়ি নিভে গেছে বলে মনে করেন তারা৷

করোনাকালে বিশ্বের অধিকাংশ দেশের অর্থনীতিই ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে৷ বেশির ভাগ দেশের জিডিপিতে ব্যাপক পতন লক্ষ্য করা গেছে এই সময়ে৷

এসিবি/ কেএম (রয়টার্স, এপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন