কম্পিউটার বাজারে নতুন প্লেবয় রিমের প্লেবুক | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 28.09.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

কম্পিউটার বাজারে নতুন প্লেবয় রিমের প্লেবুক

অ্যাপল কোম্পানির আইপ্যাডের জয়জয়কার এখন সবখানে৷ আইপ্যাডকে টেক্কা দিতে চেষ্টা করে যাচ্ছে নানা কোম্পানি৷ এবার ব্ল্যাকবেরি মোবাইলের প্রস্তুতকারক রিম প্রথমবারের মত নিয়ে এলো অত্যাধুনিক ট্যাবলেট কম্পিউটার৷

Tablet-Computer WeTab

এর চেয়ে অনেক ছোট নতুন ট্যাবলেট কম্পিউটার প্লেবুক

এর আগে আর কোন কোম্পানি এই ধরণের ট্যাবলেট কম্পিউটার বাজারে নিয়ে আসতে পারেনি৷ সেদিক থেকে রিসার্চ ইন মোশন বা রিম কোম্পানি সফল বলা চলে৷ সোমবার কোম্পানির প্রেসিডেন্ট মাইক লাজারিডিস এই ট্যাবলেট কম্পিউটার জনসম্মুখে তুলে ধরেন৷ ঘোষণা দেন, এটা হচ্ছে বিশ্বের সর্বপ্রথম প্রফেশনাল ট্যাবলেট৷ এই ট্যাবলেট কম্পিউটারের নাম রাখা হয়েছে প্লেবুক৷ কম্পিউটার জগতে এই প্লেবুক প্লেবয় হতে পারবে কিনা সেটি এখন দেখার বিষয়৷

নতুন ট্যাবলেট কম্পিউটার প্লেবুক আকারে আইপ্যাডের চেয়ে ছোট৷ আইপ্যাডের স্ক্রিন ৯.৭ ইঞ্চি আর প্লেবুকের আকার মাত্র সাত ইঞ্চি৷ এক গিগা হার্টজের একটি ডুয়েল কোর প্রসেসর কাজ করছে নতুন প্লেবুকে৷ অ্যাপলের মোবাইলগুলোতে ফ্ল্যাশ ভিডিও সফটওয়্যার ব্যবহার করা যায় না, কিন্তু ব্ল্যাকবেরি গ্রুপের এই নতুন কম্পিউটারে সেটাও করা যাবে৷ রিমের প্রেসিডেন্ট মাইক লাজারিডিস জানালেন, ইন্টারনেট জগতের পুরোপুরি স্বাদ দেবে নতুন প্লেবুক৷

Tablet Computer by Samsung

স্যামসাং এর তৈরি ট্যাবলেট কম্পিউটার

যারা ব্ল্যাকবেরি স্মার্টফোন ব্যবহার করছেন তারা ব্লুটুথ ব্যবহার করে এই প্লেবুকের সঙ্গে সংযুক্ত হতে পারবেন৷ দেখতে পারবেন ইমেইল, ক্যালেন্ডার সহ প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস৷ প্লেবুকের দুই পাশেই থাকছে দুটি ক্যামেরা৷ ফলে ভিডিও কনফারেন্স কিংবা একসঙ্গে অনেকগুলো প্রোগ্রাম চালানো সম্ভব হবে ট্যাবলেট কম্পিউটারটিতে৷ এছাড়া অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোডের সুবিধাতো থাকছেই৷

নতুন এই প্লেবুক বাজারে আসছে আর কিছুদিনের মধ্যেই৷ আগামী মাসে নির্দিষ্ট কিছু কম্পিউটার ছাড়া হবে৷ তবে বাণিজ্যিকভাবে বাজারে আসতে সময় লাগবে৷ জানা গেছে, আগামী বছরের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রে এবং বছরের মাঝামাঝি সময়ে অন্যান্য দেশগুলোতে আসবে ট্যাবলেট কম্পিউটার প্লেবুক৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক