ওজিলের চোট নিয়ে চিন্তায় ল্যোভ | খেলাধুলা | DW | 11.10.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ওজিলের চোট নিয়ে চিন্তায় ল্যোভ

একের পর এক তিন তিনখানা শক্ত ম্যাচ জিতেছে জার্মানি৷ তারপরেও দলের পরিস্থিতি নিয়ে মোটেই সন্তুষ্ট নন জাতীয় দলের কোচ ইওয়াখিম ল্যোভ৷ বলছেন, ইউরোকাপের জন্য যোগ্য হওয়া থেকে বহু দূরে রয়েছে তাঁর দল৷

default

মেসুত ওজিল

পরপর তিন ম্যাচ জিতেও খুশি নন ল্যোভ

জার্মানি ভালো খেলছে৷ ইউরোকাপের বাছাই পর্বের প্রথম তিনটে ম্যাচেই জিতেছে দারুণভাবে৷ তুরস্ককে তো হেলায় হারিয়েছে বলা যায়৷ তারপরেও জাতীয় দলের কোচ ইওয়াখিম ল্যোভ কিন্তু বলছেন, ২০১২ সালের ইউরোকাপের জন্য যোগ্য হওয়া থেকে বহুদূরে রয়েছে তাঁর দল৷ কারণ হিসেবে তিনি বলছেন, দলের ভারসাম্য ঠিকঠাক নয়৷ তার ওপর রয়েছে বেশ কিছু খেলোয়াড়ের চোট আঘাত৷ যাদের মধ্যে প্রথমেই নাম করা দরকার নির্ভরযোগ্য তরুণ তারকা মেসুত ওজিলের৷

ওজিল

তুরস্কের সঙ্গে খেলাটায় দ্বিতীয় গোলটা দেন ওজিল৷ রেয়াল মাদ্রিদের এই স্ট্রাইকার ওই খেলাতেই তুরস্কের সেরভেট সেটিনকে ট্যাকল করতে গিয়ে বাঁ পায়ের গোড়ালিতে জোর আঘাত পান৷ অবস্থা এখন এমন যে আগামীকাল মঙ্গলবার কাজাখস্তানের সঙ্গে জার্মানির পরের ম্যাচটায় ওজিল সম্ভবত দলে থাকছেন না৷ কারণ তাঁকে বিশ্রাম নিতে হবে৷ ওজিল নিজে যদিও আশাবাদী৷ মাত্র একুশ বছর বয়সী এই তারকা বলেছেন, দলের ডাক্তার আর ফিজিওদের ওপর আমার খুব আস্থা৷ আমার ধারণা আমি সুস্থ হয়ে যাব৷ যদিও গোড়ালিতে যে ব্যাথা আছে সেকথাও স্বীকার করে নিয়েছেন তিনি৷ তবে রোববার, মানে গতকাল ওজিলকে প্র্যাকটিসে দেখা যায়নি৷

কাজাখস্তানে জার্মান দল

সেটাতে কোচ ল্যোভের সন্দেহ আছে৷ কাজাখ রাজধানী আস্তানায় পৌঁছাতে চার হাজার কিলোমিটার উড়ে যেতে হবে জার্মান দলকে৷ কোচের দুশ্চিন্তা, এই লম্বা বিমানযাত্রা, কাজাখস্তানের সঙ্গে জার্মানির চারঘন্টা সময়ের ফারাক, কিছু খেলোয়াড়ের চোট এবং সর্বোপরি খেলার টেনশন৷ এই সবকিছু মিলিয়ে গন্ডগোল না হয়ে যায়৷ ইউরো বাছাইপর্বের এই খেলাটাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন তাই কোচ ল্যোভ৷ তবে বিশ্বকাপে তৃতীয় জায়গা নেয়া জার্মানির তরুণ দলটা যে এখন মোটের ওপর ছন্দের মধ্যে আছে তা কিন্তু প্রমাণ হয়েছে শেষ তিনটে খেলায়৷ যে খেলার সবগুলোই বেশ দাপট নিয়েই জিতেছে জার্মানি৷ এখন আস্তানায় কি হয়, তাই দেখার বিষয়৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়