এসএসসি পরীক্ষা শুরু | বিশ্ব | DW | 03.02.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

এসএসসি পরীক্ষা শুরু

দেশের সাড়ে তিন হাজার কেন্দ্রে একযোগে শুরু হয়েছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা; এবার ২০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৭৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে৷ করোনা ভাইরাস নিয়ে সচেতন অনেক পরীক্ষার্থী এদিন মাস্ক পরে পরীক্ষার হলে আসেন৷

সোমবার সকাল ১০টা থেকে এসএসসিতে বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্র ও সহজ বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষা হয়৷

মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে দাখিলে কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ এবং কারিগরি বোর্ডে ভোকেশনালে বাংলা-২  (১৯২১)  (সৃজনশীল) (নতুন সিলেবাস/ পুরাতন সিলেবাস)  এবং বাংলা-২  (১৭২১)  (সৃজনশীল)  (নতুন সিলেবাস/পুরাতন সিলেবাস)  এবং বিষয়ের পরীক্ষা হচ্ছে প্রথম দিন।

গত  ১ ফেব্রুয়ারি এই পরীক্ষা শুরুর কথা থাকলেও ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের ভোটের কারণে তারিখ পিছিয়ে সোমবার থেকে পরীক্ষা শুরু হয়।

আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এসএসসি ও কারিগরির তত্ত্বীয় এবং ১ মার্চ পর্যন্ত দাখিলের তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা হবে। আর ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ৫ মার্চের মধ্যে ব্যবহারিক পরীক্ষা নিতে হবে।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি সকাল সাড়ে ৯টায় পরীক্ষা শুরুর আগে তেজগাঁও সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শন করেন বলে জানায় ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টানার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

প্রশ্ন ফাঁসরোধে সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকসহ সব মহলকে প্রশ্ন ফাঁসের গুজবে কান না দিতে  অনুরোধ জানান৷

তিনি বলেন, ‘‘অভিভাবকদের প্রতি অনুরোধ, আপনারা কোনোভাবেই কেউ যেন প্রশ্ন ফাঁসের গুজবে কান না দেন। কিছু প্রতারক চক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব রটনা করে, মানুষের সাথে প্রতারণা করে টাকা আদায়ের চেষ্টা করে৷’’

পরীক্ষার মধ্যে হরতালের মত রাজনৈতিক কর্মসূচি না দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, ‘‘কোনো দলই কোনো কারণেই পাবলিক পরীক্ষা চলার সময় এমন কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি দেবেন না যেগুলো পরীক্ষার প্রক্রিয়াকে বিঘ্নিত করে, তাদের মধ্যে উদ্বেগের জন্য দেয়।”

এসএনএল/কেএম

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন