এরশাদ সবসময়ই গুরুত্বপূর্ণ ছিলেন | বিশ্ব | DW | 14.07.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

এরশাদ সবসময়ই গুরুত্বপূর্ণ ছিলেন

সামরিক শাসক থেকে রাজনীতিক, জীবনের পুরোটা সময়ই হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ ছিলেন আলোচনা-সমালোচনা, নানা বিতর্কের কেন্দ্রে৷ কখনও রাজনৈতিক মেধা-প্রজ্ঞায়, কখনও একেক সময় একেক কথা বলে৷

বাংলাদেশের রাজনীতিতে প্রবেশের পর কখনও আড়ালে যাননি এরশাদ৷ রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, এরশাদের সময়ে যেমন উন্নয়ন হয়েছে, তেমনি তাঁর একটা জনভিত্তি গড়ে উঠেছিল৷ সুষ্ঠু নির্বাচন হলে নির্দিষ্ট আসন ছিল তার৷ ফলে দেশের প্রধান দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কাছে এরশাদের একটা আকর্ষণ ছিল৷ নিজেদের ভোটের সঙ্গে এরশাদের ভোট যোগ করে জয়ের বন্দর দেখতেন তারা৷

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক শান্তনু মজুমদার ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমি এরশাদের কোনো সমর্থক নই৷ তারপরও বলছি, এরশাদ এমন কিছু করেননি, যা নতুন৷ তাঁর পূর্বসুরীরা যা করে গেছেন এরশাদ তাই করেছেন৷ আমাদের অনেক বিশ্লেষক এমনভাবে বলেন যে, ১৯৮২ সাল থেকেই সামরিক শাসন শুরু৷ অথচ বিষয়টি তা নয়৷ ১৯৭৫ সাল থেকেই সামরিক শাসন শুরু হয়েছে৷ এর আগে তার বড় ভাইরা যা করেছেন, তিনিও তাই করেছেন৷''

অডিও শুনুন 02:35

এরশাদের একটা জনভিত্তি ছিল: শান্তনু

কেন তিনি ছিলেন আকর্ষণের কেন্দ্রে? জবাবে জনাব মজুমদার বলেন, ‘‘এরশাদের একটা জনভিত্তি ছিল৷ এরশাদ কিন্তু অনেক অবিচারের সম্মুখীন হয়েছেন৷ ভুলভাবে তাঁকে উপস্থাপন করা হয়েছে৷ আপনি দেখেন যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হয় তাহলে জাতীয় সংসদে এরশাদ কিন্তু ১০ থেকে ২০ আসন পাবেন৷ এটা কিন্তু এমনিতেই তৈরি হয়নি৷ বিশেষ করে রংপুর অঞ্চলে তাঁর একটা ভালো অবস্থান রয়েছে৷ এখন ১৯৯১ পরবর্তী সময়ে আমাদের বড় রাজনৈতিক দল দু'টি তাঁকে কাছে পেতে চেয়েছে৷''

গবেষক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক মহিউদ্দিন আহমেদ ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘এরশাদ আজকে যে অবস্থানে পৌঁছেছেন এটা কিন্তু তাঁর যোগ্যতা দিয়েই৷ তিনি যে সবসময় রাজনীতির কেন্দ্রে ছিলেন, তা শুধু চমক দিয়ে নয়৷ তাঁর রাজনৈতিক মেধা ছিল৷ অল্প হলেও ছিল জনভিত্তি৷ আপনি দেখেন এরশাদের শাসনামলে ওই সময়ের মধ্যে সবচেয়ে বেশি উন্নতি হয়েছে৷ এরশাদকে স্বৈরশাসকসহ আরো অনেক কিছু বলা হয়৷ এটা কিন্তু সাধারণ মানুষ বলেন না৷

অডিও শুনুন 03:40

তাঁর রাজনৈতিক মেধা ছিল: মহিউদ্দিন

এখন আমাদের প্রধান দু'টি রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সব সময় চেয়েছে তাঁকে কাছে পেতে৷ কারণ প্রতিটি আসনেই এরশাদের ভোট আছে৷ সেটা হয়ত সব আসনে জেতার মতো না, কিন্তু বড় কোন দলের ভোটের সঙ্গে যুক্ত হলে জয়লাভ করার মতো ভোট৷ ফলে এই ভোটগুলো কে না চাইবেন সঙ্গে নিতে৷ ১৯৯০ সালে এরশাদ বিরোধী আন্দোলন হলেও ভোটের রাজনীতির কারণে পরবর্তী সময়ে অনেকেই সেটা ভুলে গেছেন৷ ফলে তাদের কাছে এরশাদ হয়ে উঠেছেন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি৷''

অধ্যাপক মজুমদার বলেন, ‘‘আমাদের মিডিয়া ও অনেক জ্ঞানী গুনি মানুষ রাজনীতিক বিশ্লেষনের সময় সামরিক শাসনের জন্য এরশাদকেই দায়ী করেন৷ অথচ একটি কাজও তিনি করেননি তারা তার পূর্বসুরিরা করেননি৷ আমি তো মনে করি অনেক ক্ষেত্রেই তাঁর প্রতি অবিচার করা হয়েছে৷ আর তিনি এখন সবকিছুর উর্ধ্বে৷ তারপরও বলছি, এরশাদের একটা জনভিত্তি আছে৷ সেটা ঠিক বা ভুল তা ভিন্ন আলোচনা৷ সেই জনভিত্তিই তাকে আকর্ষণের কেন্দ্রে নিয়ে গেছে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন