এবার গ্রেপ্তার শামীম, মদ অস্ত্র উদ্ধার | বিশ্ব | DW | 20.09.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

এবার গ্রেপ্তার শামীম, মদ অস্ত্র উদ্ধার

যুবলীগের নেতা পরিচয় দিয়ে ঠিকাদারি চালিয়ে আসা গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে নগদ প্রায় দুই কোটি টাকা, পৌনে দুইশ কোটি টাকার এফডিআর, আগ্নেয়াস্ত্র ও মদ পেয়েছে র‌্যাব৷

Libanon Beirut 2018 | Protest gegen Befragung von Social-Media-Usern durch Sicherheitskräfte (Getty Images/AFP/A. Amro)

প্রতীকী ছবি

ঢাকার নিকেতনের ওই অফিস থেকে শামীম ও তার সাত দেহরক্ষীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার জানিয়েছেন৷

ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি বলেন, শুক্রবার দুপুরের আগে নিকেতনের ওই ভবন ঘিরে তাদের অভিযান শুরু হয়, চলে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত৷

অভিযান শেষে র্যাবের নির্বাহী হাকিম সারওয়ার আলম সাংবাদিকদের জানান, ‘‘বিভিন্ন ব্যাংকে এফডিআর করে রাখা ১৬৫ কোটি ২৭ লাখ টাকার নথি তারা শামীমের অফিস কক্ষে পেয়েছেন৷ এর মধ্যে বড় একটি অংশ তার মায়ের নামে রাখা৷  এর পাশাপাশি ১ কোটি ৮১ লাখ ২৮ হাজার টাকা, ৯ হাজার মার্কিন ডলার এবং ৭৫২ সিঙ্গাপুরি ডলার সেখানে পাওয়া গেছে৷

"মোট আটটি আগ্নেয়াস্ত্র আমরা পেয়েছি৷ এগুলো বৈধ অস্ত্র বলেই প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, তবে এগুলোর অবৈধ ব্যবহারের তথ্য রয়েছে৷''

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার দক্ষিণপাড়া গ্রামের মো. আফসার উদ্দিন মাস্টারের ছেলে শামীম থাকেন বনানীর ডিওএইচএসে৷ আর নিকেতনে ৫ নম্বর সড়কের ১৪৪ নম্বর ভবনটি তিনি তার জিকেবি অ্যান্ড কোম্পানি লিমিটেডের অফিস হিসেবে ব্যবহার করেন৷

তার চলাফেরার সময় শটগানধারী ছয় দেহরক্ষীর ‘প্রটেকশন' নিয়ে শুক্রবার কয়েকটি পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়৷ তাকে বৃহস্পতিবারই আটক করেছে বলে গুঞ্জন শোনা গেলেও র্যাবের পক্ষ থেকে শুক্রবার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়৷

কলাবাগান ক্রীড়াচক্র ঘিরে র‌্যাব

ঢাকার ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব ও ওয়ান্ডারার্স ক্লাবে ক্যাসিনো পাওয়ার পর শুক্রবার বিকালে ধানমণ্ডির কলাবাগান ক্রীড়াচক্র ঘিরে অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছে র‌্যাব৷

র‌্যাব-২ এর উপ অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহিউদ্দিন ফারুকী বলেন, "আমরা কলাবাগান ক্লাবেও অভিযান চালাব, এখন আমরা ম্যাজিস্ট্রেটের অপেক্ষায় রয়েছি৷''

ক্লাবের সভাপতি শফিকুল আলম ফিরোজকে আটক করার গুঞ্জনের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ফারুকী বলেন, "এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি, আমরা অপেক্ষায় রয়েছি৷''

যুবলীগ থেকে খালেদ বহিষ্কার

ঢাকার ফকিরাপুল ইয়ংমেনস ক্লাবে ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে৷

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ শুক্রবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, "সাম্প্রতিক সময়ে খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ ওঠায় কেন্দ্রীয় যুবলীগ জরুরি ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷''

কী কারণ দেখিয়ে খালেদকে বহিষ্কার করা হয়েছে সেই প্রশ্নে তিনি বলেন,"আপাতত খালেদ বহিষ্কার। পরবর্তী সিদ্ধান্ত পরে জানানো হবে৷''

এসআই/কেএম (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন