এফ-১৬ বিক্রি করতে পারে অ্যামেরিকা: এর্দোয়ান | বিশ্ব | DW | 18.10.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

তুরস্ক

এফ-১৬ বিক্রি করতে পারে অ্যামেরিকা: এর্দোয়ান

তুরস্ককে এফ-১৬ যুদ্ধবিমান বিক্রি করতে পারে অ্যামেরিকা, জানালেন এর্দোয়ান। আগে অ্যামেরিকা যুদ্ধবিমান বিক্রি বন্ধ রেখেছিল।

অ্যামেরিকা, ইসরায়েল, পাকিস্তান সহ ২০ দেশের হাতে এফ-১৬ যুদ্ধবিমান আছে।

অ্যামেরিকা, ইসরায়েল, পাকিস্তান সহ ২০ দেশের হাতে এফ-১৬ যুদ্ধবিমান আছে।

রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম কিনছে তুরস্ক। তাই তুরস্ককে এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান বিক্রি বন্ধ রেখেছিল অ্যামেরিকা। কিন্তু তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এর্দোয়ান জানিয়েছেন, অ্যামেরিকা তাদের এফ-১৬ যুদ্ধবিমান বিক্রি করতে পারে।

এর্দোয়ান কী বলেছেন

এর্দোয়ান জানিয়েছেন, ''এফ-৩৫ কেনার জন্য আমরা অ্যামেরিকাকে ১৪০ কোটি ডলার দিয়েছি। এখন অ্যামেরিকা আমাদের কাছে এফ-১৬ বিক্রির প্রস্তাব দিয়েছে। আমরা বলেছি, আমাদের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার জন্য যা প্রয়োজন আমরা সেটাই নেব।''

তুরস্ক সরকার রাশিয়ার কাছ থেকে এস ৪০০ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার সিদ্ধান্ত নেয়ার পরেই অ্যামেরিকার সঙ্গে তাদের কূটনৈতিক টানাপোড়েন শুরু হয়। দুই দেশই ন্যাটোতে আছে। 

অ্যামেরিকা জানিয়ে দেয়, তুরস্ক যেন রাশিয়ার কাছ থেকে যুদ্ধাস্ত্র না কেনে। তুরস্কের ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রি ডিরেক্টরেটের উপর নিষেধাজ্ঞাও জারি করে অ্যামেরিকা।

এর্দোয়ান গতমাসে বলেছিলেন, রাশিয়ার কাছ থেকে এস ৪০০ ডিফেন্স সিস্টেম কেনার পরিকল্পনা করেছে তুরস্ক। এখন সিবিএস নিউজকে এর্দোয়ান জানিয়েছেন, ''ভবিষ্যতে আমরা কী ডিফেন্স সিস্টেম কিনব, তা নিয়ে অন্য কোনো দেশ হস্তক্ষেপ করতে পারে না।''

বাধা দিতে পারে কংগ্রেস

বাইডেন প্রশাসন তুরস্ককে এফ-১৬ যুদ্ধবিমান বিক্রি করতে চাইলে বাধা দিতে পারে মার্কিন কংগ্রেস। সেনেটের পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক কমিটির প্রধান বব মেনেন্ডেজ তুরস্ককে অস্ত্র বিক্রির বিরোধী। বিশেষ করে তারা রাশিয়ার কাছ থেকে ডিফেন্স সিস্টেম কেনার সিদ্ধান্ত নেয়ার পর। তা ছাড়া ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান কিছু সেনেটারও ববের সঙ্গে এই বিষয়ে একমত।

এই বছর মানবাধিকার নিয়ে অ্যামেরিকা ও তুরস্কের বিরোধ সামনে এসেছে। সিরিয়া নিয়েও দুই দেশের নীতি আলাদা। পূর্ব ভূমধ্যসাগরে গ্যাসের খোঁজ নিয়ে তুরস্কের নীতিও অ্যামেরিকা সমর্থন করে না।

ডিএইচ/এসজি(রয়টার্স, এপি, এএফপি)