এনআরসি-র বিরুদ্ধে মমতা | বিশ্ব | DW | 12.09.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

এনআরসি-র বিরুদ্ধে মমতা

বৃহস্পতিবার কলকাতায় মুখ‍্যমন্ত্রী ব‍্যানার্জির নেতৃত্বে মিছিল হলো এনআরসির বিরুদ্ধে৷ ‘‘আগুন নিয়ে খেলবেন না'', হুঁশিয়ারি মমতার৷

আসামে এনআরসি, বা নাগরিক পঞ্জিকরণ প্রক্রিয়া গতি পায় সে রাজ‍্যে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর৷ তখন থেকেই বিজেপি নেতারা ক্রমাগত হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন, পশ্চিমবঙ্গেও এনআরসি চালু হবে৷ খোদ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এই হুমকি দিয়েছেন একাধিকবার৷ ভোটার তালিকা সংশোধন করার নাম করে সেই প্রক্রিয়া তলে তলে শুরুও হয়ে গেছে বলে খবর৷

এর প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার কলকাতায় মহা মিছিলের ডাক দিয়েছিলেন রাজ‍্যের মুখ্যমন্ত্রী, তৃণমূল নেত্রী মমতা ব‍্যানার্জি৷ উত্তর কলকাতার চিড়িয়া মোড় থেকে মিছিল হাঁটল শ‍্যামবাজার পাঁচমাথার মোড় পর্যন্ত৷ সেখানে এক জনসভায় প্রথম সারির নেতাদের পাশে নিয়ে মমতা বিজেপির উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি দিলেন, ‘‘আগুন নিয়ে খেলবেন না৷ পশ্চিমবঙ্গে এন আর সি চালুর চেষ্টা হলে আগুন জ্বলবে৷''

অডিও শুনুন 01:30

‘বিজেপি মুসলমানদের ক্ষতি করতে গিয়ে আসলে হিন্দুদেরই ক্ষতি করছে’

মুর্শিদাবাদ থেকে মিছিলে হাঁটতে এসেছিলেন জাঙ্গিপুরের তৃণমূল বিধায়ক, রাজ‍্য শ্রম দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী জাকির হোসেন৷ তিনি ডয়চে ভেলেকে বললেন, ‘‘বিজেপি মুসলমানদের ক্ষতি করতে গিয়ে আসলে হিন্দুদেরই ক্ষতি করছে৷ যেমনটা হয়েছে আসামে৷ নাগরিক তালিকার বাইরে যাঁরা রয়ে গেছেন, তাঁদের সংখ‍্যাগরিষ্ঠ হিন্দু!''

জাকির হোসেন জোর গলায় বললেন, তাঁর জেলা মুর্শিদাবাদে যে মুসলিমরা আছেন, তাঁরা সবাই ভারতীয়৷ যা়ঁরা হিন্দু, তাঁরাই বরং বিভিন্ন সময় বাংলাদেশ থেকে এসেছেন৷ কিন্তু সেটা বিষয় নয়৷ জাত-ধর্ম নির্বিশেষে সবাই পশ্চিমবঙ্গের মানুষ৷ এনআরসি চালু করার যে কোনো চেষ্টা তাঁরা রুখে দেবেন বলে জানান তিনি৷

একই কথা ডয়চে ভেলেকে বললেন উত্তরবঙ্গের তৃণমূল নেতা, রাজ‍্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব৷ তিনি বলেন, মাঠেঘাটে লড়াই হবে এনআরসিরবিরুদ্ধে৷ টেলিফোনে তাঁর কথা ডুবে গেল হাজার মানুষের প্রতিবাদী গর্জনে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন