এথেন্সের রাস্তায় পুলিশ-বিক্ষোভকারী সংঘর্ষ | বিশ্ব | DW | 10.03.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

গ্রিস

এথেন্সের রাস্তায় পুলিশ-বিক্ষোভকারী সংঘর্ষ

অভিযোগ পুলিশি বাড়াবাড়ির। তারই প্রতিবাদে এথেন্সের রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ যুবকদের। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ।

গ্রিসে এখন নিয়মিত পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ হচ্ছে। গত ৩ মার্চের ছবি।

গ্রিসে এখন নিয়মিত পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ হচ্ছে। গত ৩ মার্চের ছবি।

করোনা বিধি না মানার জন্য এক যুবককে রাস্তায় ফেলে পিটিয়েছিল পুলিশ। সেই ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই এথেন্সের রাস্তায় নেমে পড়েন হাজার পাঁচেক যুবক। তার মধ্যে শ-দুয়েক বিক্ষোভকারী সোজা থানার দিকে যান।

পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও জলকামান ব্যবহার করে তাদের ছত্রভঙ্গ করতে চায়। শুরু হয় সংঘর্ষ। টিভি ফুটেজে দেখা গেছে, একজন পুলিশ কর্মী রাস্তায় শুয়ে। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তার মাথায় আঘাত লেগেছে।

বিক্ষোভকারীদের হাতে ছিল পোস্টার ও ব্যানার। তাতে লেখা ছিল, 'আমাদের পাড়া থেকে পুলিশ দূর হঠো'।

পুলিশের এই আচরণ নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন বিরোধী রাজনীতিকরাও। তাদের দাবি, পুলিশ যুবকদের বিরুদ্ধে নির্মম আচরণ করেছে, যা মানা যায় না। তাদের অভিযোগ, সরকার করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ। তারা শুধু জোরজুলুম করতেই জানে।

গত কয়েক মাস ধরেই গ্রিসে পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সম্পর্ক খারাপ হয়েছে। পুলিশ যেভাবে করোনা নিয়ে কড়াকড়ি করছে, তার প্রতিবাদ জানিয়েছেন মানবাধিকার কর্মীরা। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের ব্যবহারের নিন্দাও করেছেন তারা। বিক্ষোভকারীদের পাশাপাশি সাংবাদিক, আইনজীবীদের সঙ্গেও পুলিশ খুব খারাপ ব্যবহার করেছে বলে অভিযোগ।

গত জুলাইয়ে পার্লামেন্টে একটি আইন পাস হয়েছে, যেখানে বিক্ষোভ দেখানোর উপর অনেক কড়াকড়ি করা হয়েছে। এমনকী বলা হয়েছে, পুলিশি নিরাপত্তা বিঘ্নিত হলে বিক্ষোভ দেখানো যাবে না।

জিএইচ/এসজি(এএফপি, রয়টার্স)