এক কঠোর মায়ের গল্প | বিশ্ব | DW | 26.02.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

এক কঠোর মায়ের গল্প

মায়েরাই সবচেয়ে ভালো জানেন৷ এই কথাটি কে না শুনেছেন৷ অনেকে মানেন, অনেকে মানেন না৷ মা সন্তানের প্রতি কঠোর হন কেন? কারণ, তিনি তাঁর সন্তানের ভালো চান৷ এমনই এক বিজ্ঞাপনের ভিডিও ফেসবুক মাতিয়ে বেড়াচ্ছে৷

মায়েরা কেন যেন এমনই হন৷ সন্তানের জন্য কী না করেন৷ কখনো ভালোবাসার চাদরে আগলে রাখেন৷ কখনো হন ইস্পাত কঠিন৷

সন্তানের কোনো কোনো ভুল এমনিই ভুলে যান৷ আবার কোনো কোনো ভুলের জন্য শক্ত হয়ে প্রতিবাদ করেন৷ শুধরে দিতে যা করার তা-ই করেন৷ তা সন্তানের কাছে নিষ্ঠুর মনে হতেই পারে৷ কিন্তু সেই নিষ্ঠুরতার জন্য মা নিজেই কতটা কষ্ট পান তা কি আর কেউ উপলব্ধি করতে পারেন?

সচেতনতামূলক বিজ্ঞাপনচিত্রটি ভারতের৷ একটি মশক নিধন পণ্যের প্রস্তুতকারক কোম্পানি বানিয়েছে৷ এটি ফেসবুকে পোস্ট করার দু'দিনের মধ্যে এর ভিউ এক কোটির কাছাকাছি চলে যায়৷ শেয়ার করা হয় প্রায় আড়াই লাখ বার৷ কমেন্ট পড়েছে প্রায় নয় লাখ৷ বিজ্ঞাপনচিত্রটি প্রায় চার মিনিটের৷ সেখানে দেখা যায়, একটি যৌথ পরিবারের সবাই একসঙ্গে খেতে বসেছেন৷ পরিবারের ছেলের স্ত্রী নিজে না খেয়ে সবাইকে খাওয়াচ্ছেন৷ সেই টেবিলে তাঁর ছেলে শিশু সন্তানটিও রয়েছে, যে কিনা বারবার খাবারের থালাটি সরিয়ে দিচ্ছে৷

মা কয়েকবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে পরে থালাটি সরিয়ে রাখেন৷ মায়ের এমন ‘নিষ্ঠুর’ আচরণে পরিবারের সবাই তাঁকে ভালোমন্দ বলতে থাকেন৷

কিছুক্ষণের মধ্যেই পরিষ্কার হয়ে যায়, শিশুটি তার মায়ের ব্যাগ থেকে দশ টাকা চুরি করেছে৷ এত ছোট অপরাধের জন্য কেন এত কঠিন সাজা দেয়া হচ্ছে তা নিয়ে সবাই কথা শোনাচ্ছেন শিশুটির মা’কে৷

ঠিক তখনই বাড়ির সবচেয়ে বয়োজ্যেষ্ঠ লোকটি সবাইকে থামিয়ে দিয়ে বলেন, শিশুটির মা যা করছেন, তা ঠিকই করছেন৷

ভিডিওটির মূল মেসেজটি হলো, ‘‘যখন আপনি দেখবেন একজন মা কঠোর হচ্ছেন, তাঁর পাশে দাঁড়ান৷’’

জেডএ/এসিবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়