একে অপরের বিমান ভূপাতিত করলো পাকিস্তান, ভারত | বিশ্ব | DW | 27.02.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত-পাকিস্তান

একে অপরের বিমান ভূপাতিত করলো পাকিস্তান, ভারত

বুধবার দুটি ভারতীয় বিমান ভূপাতিত করা হলে পালটা চালে ভারতও পাকিস্তানের একটি বিমানে হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেছে ভারত৷ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান যুদ্ধে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদীকে৷

কাশ্মীরে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর বহরে হামলার জবাবে মঙ্গলবার পাকিস্তানের বালাকোট অঞ্চলেবিমান হামলা চালায় বলে জানিয়েছিল ভারত৷

নতুন দিল্লির দাবি, কাশ্মীরে সেই হামলা চালায় পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি গোষ্ঠী ‘জৈশ-ই-মোহাম্মদ'৷ সেই ‘জৈশ-ই-মোহাম্মদ’-এর গুরুত্বপূর্ণ ঘাঁটিতেই হামলার দাবি করেছে ভারত৷

এদিকে, মঙ্গলবারের হামলার জবাবে বুধবার পাকিস্তান দুটি ভারতীয় বিমানে হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেছে৷ পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর এক টুইটে জানান, ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের আকাশে এই হামলা চালানো হয়৷ পরে ভারতের যে দুটি বিমান আক্রান্ত হয়, তার একটি পাকিস্তান-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে এসে পড়লে সেই বিমানের চালককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ আরেকটি বিমান ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ভেঙে পড়ে বলেও জানান তিনি৷

এদিকে, ভারত সরকারের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে যে পাকিস্তানে গ্রেপ্তার হওয়া ভারতীয় বিমানচালকের নাম অভিনন্দন বার্তামান৷

দুই দেশের পক্ষেই শোনা যাচ্ছে হামলা-পালটা হামলার কথা৷ শেষ খবর পাওয়া অনুযায়ী, পাকিস্তানের মাটিতে ভেঙে পড়া ভারতীয় বিমানের সত্যতা যাচাই করা গেলেও ভারত সরকারের পাকিস্তানের বিমানে হামলা করার দাবির সত্যতা এখনও যাচাই করা যায়নি৷

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এক টেলিভিশন বার্তায় ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়েছেন৷ ভারতের শুভবুদ্ধির উদয়ের আশা করে তিনি যুদ্ধের অযৌক্তিকতার দিকে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন৷

এদিকে, চীনের একটি আন্তর্জাতিক বৈঠকে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ বলেন, ‘‘আমরা চাই না অবস্থার আরও অবনতি হোক৷’’

Infografik Karte Atomwaffenarsenal Indien und Pakistan 2018 EN

রণসাজে দক্ষিণ এশিয়া?

ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে হামলা-পালটা হামলার কারণে ইতিমধ্যে দুই দেশের সীমান্তবর্তী অঞ্চলে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে৷ শ্রীনগর ছাড়া আরো তিনটি সীমান্তবর্তী বিমানবন্দর বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে ভারতের বিমানবাহিনী৷

ভারতীয় সূত্রমতে, পাকিস্তানের তিনটি বিমান ভারতীয় আকাশে এসে পড়লেও তাদের ফেরত পাঠাতে সক্ষম হয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী৷

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ ফয়সাল এবিষয়ে বলেন, ‘‘এই হামলা আমাদের অধিকার, ইচ্ছা ও নিজেদের রক্ষার্থে ক্ষমতা ব্যবহারের প্রতিফলন৷ আমরা হামলা চাই না, কিন্তু পরিস্থিতির জবাব দিতে পিছপা হব না৷''

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে বৈরি সম্পর্ক থাকা দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ১৪ ফেব্রুয়ারির হামলার পর থেকে উত্তেজনা আরো বেড়েছে৷ কাশ্মীর অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে অতীতে দু'বার যুদ্ধে লিপ্ত হয় ভারত ও পাকিস্তান৷

এসএস/জেডএইচ (এএফপি, এপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন