একটি অলৌকিক ঘটনা | বিশ্ব | DW | 10.11.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

নিউজিল্যান্ড

একটি অলৌকিক ঘটনা

অথৈ সাগরে কে না হাবুডুবু খায়! সাঁতার না জানলে তো মৃত্যু অবধারিত৷ আর এক মিনিট গেলে ওর আর বাঁচা হতো না৷ বয়স মাত্র ১৮ মাস৷ ওইটুকু শিশুর সাগরে ডুবতে ডুবতে বেঁচে যাওয়াকে অলৌকিক ঘটনাই বলছেন সবাই৷

নিউজিল্যান্ডের মাটাটা বিচে সেদিন একটু ভোরেই মাছ ধরতে গিয়েছিলেন গাস হাট৷ সাগরের কাছে যেতেই ভাসমান একটা কিছু চোখে পড়ে৷ মনে হলো পুতুল৷ পুতুল দিয়ে তিনি কী করবেন! প্রথমে গুরুত্বই দেননি৷ পরে কী মনে করে হাত বাড়ালেন৷ কাঁধে হাত দিয়েও মনে হলো পোর্সেলিনের পুতুল৷ কিন্তু তুলে আনতেই কেমন যেন আওয়াজ করে উঠল পুতুলটি৷ গাস হাট তখন বুঝলেন, পুতুল নয়, আসলে জ্বলজ্যান্ত মানবশিশু৷

শিশুটির নাম মালচি রিভ৷ মাটাটা সৈকতেই এক তাঁবুতে মা-বাবার সঙ্গে ঘুমাচ্ছিল সে৷ ঘুম ভাঙার পর তার একটু বাইরে যেতে ইচ্ছে করল৷ তাঁবুর জিপ (চেইন) খুলে বের হলো আর তারপরই শুরু হলো সাগরের ঢেউ লক্ষ্য করে দৌড়৷ ওই দৌড়ই তাকে নিয়ে যাচ্ছিল মৃত্যুর কোলে৷ ভাগ্যিস গাস হাট সেদিন অন্যদিনের চেয়ে একটু আগেভাগে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন! ভাগ্যিস প্রতিদিন যে জায়গটায় মাছ ধরেন, সেখান থেকে প্রায় একশ' মিটার দূরে গিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন৷ ভাগ্যিস চোখ পড়েছিল পুতুলের মতো সুন্দর শিশুটির দিকে! তিনি একটু আগে না গেলে, একটু দূরে গিয়ে না দাঁড়ালে, এক পলকের জন্য ওদিকে না তাকালে তো মালচি আর জীবন্ত ফিরত না মায়ের কোলে!

এসিবি/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন