এআই প্রযুক্তিবিদরা ‘খুনি রোবট′ সম্পর্কে সাবধান করলেন | বিশ্ব | DW | 22.08.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

এআই প্রযুক্তিবিদরা ‘খুনি রোবট' সম্পর্কে সাবধান করলেন

রোবটিক্স ও আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে কর্মরত বড় বড় সংস্থার প্রধানেরা জাতিসংঘের প্রতি লিখিত একটি খোলাচিঠিতে তথাকথিত ‘কিলার রোবটস'-দের বিপদ সম্পর্কে সাবধান করে দিয়েছেন৷

সোমবার একশ'র বেশি ‘টেক' নেতা তাদের খোলাচিঠিতে যুদ্ধের প্রণালী ও অস্ত্রসজ্জায় একটি ‘‘তৃতীয় বিপ্লবের'' ঝুঁকির কথা বলেছেন৷ তাদের এই সতর্কতা বিশেষ করে জাতিসংঘের ‘প্রথাগত সমরাস্ত্র বিষয়ক সম্মেলনের' প্রতি উদ্দিষ্ট৷ সোমবারেই ঐ সম্মেলনের একটি নতুন অধিবেশন শুরু হবার কথা ছিল৷

চিঠিতে টেক নেতারা বলেছেন যে, তাদের কোম্পানিসমূহ আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স (স্বয়ং চিন্তা করতে ও সিদ্ধান্ত নিতে সক্ষম যে যন্ত্র) ওরোবটিক্স (রোবট নির্মাণ)প্রযুক্তি উৎপাদন করে থাকে, স্বশাসিত বা স্বচালিত সমরাস্ত্রের বিকাশের জন্য যে প্রযুক্তি বদলে নেওয়া সম্ভব৷ সেই কারণেই তারা এ ব্যাপারে সাবধান করে দেওয়াকে তাদের বিশেষ দায়িত্ব বলে মনে করেছেন, বলে টেক নেতারা তাদের চিঠিতে ব্যাখ্যা দিয়েছেন৷

চিঠির স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে সংশ্লিষ্ট টেক শিল্পের প্রায় সব মাথারাই আছেন, যেমন স্পেস-এক্স কোম্পানির সিইও ইলন মাস্ক বা গুগল কোম্পানির ডিপমাইন্ড-এর প্রতিষ্ঠাতা ও গুগল-এর এআই বিভাগের প্রধান মুস্তাফা সুলেইমান৷

স্বাক্ষরকারীরা তাদের সৃষ্ট এআই  ও রোবটিক্স প্রযুক্তি থেকে যে ‘খুনি রোবট' যুদ্ধযাত্রার বিকাশ ঘটতে পারে, তার ‘‘স্থিতি হানিকর প্রভাব'' এড়ানোর জন্য নিরাপত্তা জনিত ব্যবস্থার ডাক দিয়েছেন৷ একবার স্বচালিত সমরাস্ত্রের পথে গেলে, সেখান থেকে আবার ফেরা কঠিন হতে পারে, বলে তাদের ধারণা৷ এছাড়া এক নতুন অস্ত্র প্রতিযোগিতা শুরু হতে পারে; এই প্রযুক্তির অপব্যবহারের ফলে বেসামরিক নাগরিকরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হন, তারও ব্যবস্থা করা দরকার, বলে টেক নেতাদের অভিমত৷

বিপদ সংকেত এই প্রথম নয়

টেক শিল্পের নেতৃবর্গ এর আগেও ‘লিথাল অটোনমাস উইপন সিস্টেমস' বা ‘প্রাণঘাতী স্বশাসিত অস্ত্র প্রণালী', এক কথায় ‘বুদ্ধিযুক্ত সমরাস্ত্র' সম্পর্কে সাবধান করে দিয়েছেন৷ ২০১৫ সালে এক হাজারের বেশি নেতৃস্থানীয় বিজ্ঞানী তথাকথিত ‘খুনি রোবটদের' বিপদ সম্পর্কে বিশ্বকে সাবধান করে দেন৷

বিশ্বখ্যাত পদার্থবিদ স্টিফেন হকিং এআই বা কৃত্রিম বুদ্ধিকে ‘‘চিরকালের সবচেয়ে বড় ভ্রম'' বলে অভিহিত করেছেন৷ ইলন মাস্ক আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সকে মানব অস্তিত্বের পক্ষে সবচেয়ে বড় হুমকি বলে বর্ণনা করেছেন৷

বুদ্ধিযুক্ত সমরাস্ত্র ‘‘সন্ত্রাসের অস্ত্র'' হয়ে উঠতে পারে, ‘‘স্বৈরাচারী শাসক ও সন্ত্রাসবাদীরা যে অস্ত্র নিরপরাধ জনগণের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে পারে'', বলে টেক নেতাদের চিঠিতে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে৷ আবার হ্যাকাররা এই সব বুদ্ধিযুক্ত সমরাস্ত্র হ্যাক করে সেগুলি দিয়ে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাতে পারে৷

প্রতিষেধমূলক পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য বেশি সময় আর বাকি নেই, বলে টেক নেতাদের খোলাচিঠিতে মন্তব্য করা হয়েছে৷

চতুর্থ লিউয়িস স্যান্ডার্স/এসি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন