‘উত্তর কোরিয়ার উপর চাপ কমালে চলবে না′ | বিশ্ব | DW | 17.01.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

উত্তর কোরিয়া

‘উত্তর কোরিয়ার উপর চাপ কমালে চলবে না'

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়া তর্জনগর্জন কমিয়ে সুর নরম করা সত্ত্বেও সে দেশের সঙ্গে বাকি বিশ্বের যুদ্ধের আশঙ্কা কমেনি বলে সতর্ক করে দিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন৷ জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়াও সে বিষয়ে একমত৷

উত্তর কোরিয়া সংকট সম্পর্কে আলোচনা করতে ক্যানাডার ভ্যাংকুভার শহরে ২০টি দেশের এক বৈঠক আয়োজন করা হয়েছিল৷ ১৯৫০ থেকে ১৯৫৩ সাল পর্যন্ত কোরীয় উপদ্বীপের যুদ্ধে জাতিসংঘের কমান্ডে যেসব দেশ সক্রিয় ছিল, তাদের এই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল৷ সেইসঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, ভারত ও সুইডেনের প্রতিনিধিরাও এই আলোচনায় যোগ দিয়েছেন৷ আমন্ত্রণ সত্ত্বেও চীন ও রাশিয়া কোনো প্রতিনিধি পাঠায়নি৷ এই বৈঠকের নিন্দা করে এই দুই দেশ বলেছে, এর ফলে হিতে বিপরীত হবে৷

টিলারসন উত্তর কোরিয়া সম্পর্কে ট্রাম্প প্রশাসনের মনোভাব স্পষ্ট করে দিয়েছেন৷ তাঁর মতে,পিয়ং ইয়ং পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অগ্রগতির পথে চলেছে৷ আন্তর্জাতিক সমাজের সঙ্গে বোঝাপড়ার চেষ্টা করছে না সে দেশ৷ এই অবস্থায় তারা নিজেরাই কিছু ঘটিয়ে ফেলতে পারে৷ টিলারসন বলেন, উত্তর কোরিয়াকে বুঝতে হবে যে, বর্তমান সংকটের সামরিক সমাধান তাদের জন্য ভালো ফল বয়ে আনবে না৷ তবে তাঁর মতে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বর্তমান সংকটের কূটনৈতিক সমাধানসূত্রে আগ্রহী৷

ট্রাম্প প্রশাসন উত্তর কোরিয়াকে সতর্ক করে দিতে সে দেশের পরমাণু স্থাপনার উপর আগাম হামলা চালাতে পারে, সংবাদ মাধ্যমের একাংশে এমন প্রতিবেদন সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করেননি টিলারসন৷ ট্রাম্প গোপনে সরাসরি উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন-এর সঙ্গে কথা বলেছেন কিনা, সে বিষয়েও নীরব ছিলেন তিনি৷

আয়োজক দেশ ক্যানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড বলেন, অংশগ্রহণকারী দেশগুলি উত্তর কোরিয়ার উপরজাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা কড়া হাতে কার্যকর করার বিষয়ে একমত৷ সে দেশ যাতে নিষেধাজ্ঞা এড়িয়ে যেতে না পারে, সে দিকেও কড়া নজর রাখতে চায় তারা৷ সেই সঙ্গে মারণাস্ত্র কর্মসূচির জন্য অর্থের জোগান বন্ধ করার পথ খুঁজছে এই সব দেশ৷

জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তারো কোনো বাকি বিশ্বকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, বর্তমানে উত্তর কোরিয়া সুর নরম করে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার যে পদক্ষেপ নিচ্ছে, তাতে মুগ্ধ হলে চলবে না৷ তাঁর মতে, উত্তর কোরিয়ার উপর চাপ কমানোর সময় আসেনি৷ দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীও একই সুরে বক্তব্য রাখেন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়