উত্তর কোরিয়ার সৈন্যের প্রাণ হাতে নিয়ে পালানোর দৃশ্য | বিশ্ব | DW | 23.11.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

উত্তর কোরিয়ার সৈন্যের প্রাণ হাতে নিয়ে পালানোর দৃশ্য

ইউনাইটেড নেশন্স কমান্ড বা ইউএনসি প্রচার করার পর থেকে ভিডিওটি নিয়ে সারা বিশ্বেই চলছে আলোচনা৷ লক্ষ লক্ষ মানুষ দেখছেন আর অবাক হয়ে ভাবছেন, ‘‘এমন ঝুঁকি নিয়েও কেউ দেশ ছাড়ে!’’

নীচের এই ভিডিওতে দেখা যাবে, এক উত্তর কোরীয় সৈন্য কীভাবে প্রায় উন্মাদের মতো দৌড়ে প্রতিবেশী দেশ দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রবেশের চেষ্টা করছেন৷ যাত্রা শুরু হয়েছিল অনেক আগে৷ অনেকক্ষণ গাড়ি চালিয়ে বৈরিভাবাপন্ন দুই দেশের সীমান্তের ওই জায়গাটায় এলেন৷ তারপর গাড়ি থেকে নেমেই দৌড়৷ উত্তর কোরিয়ার অন্য সৈন্যরা তখন ধরার জন্য ধাওয়া করে তাঁকে৷ কিন্তু তিনি থামবেন না৷ যে করেই হোক দক্ষিণ কোরিয়ায় যেতেই হবে তাঁকে৷ খুব কাছ থেকে চারবার গুলি করেও তাই উত্তর কোরিয়ার অন্য সৈন্যরা তাঁকে থামাতে পারেনি৷

সহযোদ্ধাকে ধরতে গিয়ে উত্তর কোরিয়ার সৈন্যরাও নাকি অল্প সময়ের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার সীমানায় ঢুকে পড়েছিলেন৷ এর মাধ্যমে কমিউনিস্ট দেশটির সৈন্যরা ১৯৫৩ সালে স্বাক্ষরিত যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্খন করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে৷ চুক্তি অনুযায়ী সৈন্যরা যে গুলি করেছেন, সেটিও অন্যায়৷ দেশ ছাড়তে মরিয়া এক সৈন্যকে আটকাতে গিয়ে উত্তর কোরিয়ার সৈন্যরা সত্যিই চুক্তি লঙ্ঘন করেছেন কিনা এ নিয়েই এখন চলছে ব্যাপক আলোচনা৷ তবে গুলিতে আহত ওই সৈনিকের তা নিয়ে কোনো চিন্তা নেই৷

জানা গেছে, ২৪ বছর বয়সি ওই তরুণের নাম ‘ওহ’৷ যুক্তরাষ্ট্রের হেলিকপ্টারে করে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সৌলের এক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাঁকে৷ সেখানে দু'টি অস্ত্রোপচার হয়েছে তাঁর শরীরে৷ বের করে নেয়া হয়েছে গুলি৷ ডাক্তাররা জানিয়েছেন, ওহ এখন বেশ সুস্থ৷ টেলিভিশনে দক্ষিণ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের চলচ্চিত্র দেখছেন তিনি!

এসিবি/জেডএইচ (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়