ইহুদির ওপর হামলা চালানো কিশোর দোষী সাব্যস্ত | বিশ্ব | DW | 26.06.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

ইহুদির ওপর হামলা চালানো কিশোর দোষী সাব্যস্ত

ধর্মীয় টুপি পরার জন্য জার্মানিতে আক্রমণের মুখে পড়েছিলেন এক আরব-ইজরায়েলি ব্যক্তি৷ আক্রমণকারীকে চার সপ্তাহের জন্য বন্দি রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত৷ বার্লিনের এই ঘটনায় জার্মানিতে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়েছে৷

ধর্ম-জাতিবিদ্বেষের বিরুদ্ধে পথে নেমেছে মানু্ষ৷ ইহুদিদের ধর্মীয় পোশাক কিপা৷ ইহুদি পুরুষরা মাথায় এই ধরনের টুপি পরে থাকেন৷ গত এপ্রিলে ১৯ বছর বয়সি এক সিরীয় তরুণ কিপা পরার জন্য আক্রমণ করে দুই ইহুদিকে৷ তাঁদের সঙ্গে অভব্য আচরণ তো করেই, তারপর মারধরও করে৷ এই অপরাধে অভিযুক্তকে দোষী সাব্যস্ত করেছে আদালত৷

জার্মানির ইহুদি কাউন্সিল আদালতের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে৷ জার্মানির জাতিবিদ্বেষ বিরোধী কমিশনার ফেলিক্স ক্লাইন এই মামলায় দ্রুত রায় ঘোষণার জন্য সন্তোষ প্রকাশ করেছেন৷ তিনি বলেছেন, যারাই জাতিবিদ্বেষী কাজ করুক না কেন, তাদের আইনের মোকাবিলা করতে হবে৷

আদালতের রায়

বার্লিনের আদালত অপরাধীকে চার সপ্তাহ কিশোরদের জন্য নির্দিষ্ট বন্দি অবস্থায় রাখার নির্দেশ দিয়েছে৷ যদিও বিচার চলাকালীন ইতিমধ্যেই চার সপ্তাহ অতিক্রান্ত হওয়ায় সিরীয় কিশোরকে মুক্তি দিতে বলা হয়েছে৷ আগামী এক বছর তাকে বিশেষ যত্ন ও নজরদারিতে রাখা হবে৷

কিশোরের অপরাধের পিছনে জাতিবিদ্বেষই রয়েছে, এ কথা স্পষ্টভাবে বলেননি বিচারক৷ তবে তাকে হাউস অফ ওয়ানসি কনফারেন্সে নিয়ে যেতে বলা হয়েছে, যেখানে নাৎসিরা ইউরোপের ইহুদিদের খুনের ছক কষেছিল৷

ভিডিও দেখুন 04:28
এখন লাইভ
04:28 মিনিট

Berlin: Young man attacked for wearing a kippa

দিনের আলোয় হামলা

১৭ এপ্রিল এক আরব-ইজরায়েলি ব্যক্তি ও তাঁর জার্মান-মরক্কো বংশোদ্ভূত বন্ধু বার্লিনের প্রেনন্ৎসলারবার্গ এলাকা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন৷ দুজনের মাথাতেই ছিল কিপা৷ হামলার ভিডিওতে দেখা যায়, আক্রমণকারী একজনকে বেল্ট দিয়ে আঘাত করে ‘ইহুদি' বলে চিৎকার করে ওঠে৷ আক্রান্ত ২১ বছরের ইজরায়েলি ব্যক্তি ডয়চে ভেলেকে জানিয়েছেন, তিনি ইহুদি নন৷ বার্লিনে কিপা পরা নিরাপদ কি না সেটা যাচাই করতে তিনি সেটি পরেছিলেন৷

গত বৃহস্পতিবার হামলাকারী কিশোর আদালতকে বলে, সে পথচারীদের ভয় দেখাতে চেয়েছিলো৷ তবে সে আদালতে দুঃখ প্রকাশ করে বলেছে, ‘‘আমি ভুল করেছি৷ ওকে আঘাত করা আমার লক্ষ্য ছিল না৷ আমি কেবল ভয় দেখাতে চেয়েছিলাম৷'' কিশোরটি মনে করে, মাদকের আসক্তির কারণে সেএই কাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে৷ তবে ইহুদিদের প্রতি বিদ্বেষের কারণে হামলা চালায়নি বলে আদালতের কাছে দাবি করেছে সে৷

জাতিবিদ্বেষের বিরুদ্ধে জার্মানিতে প্রতিবাদ

জার্মানির রাজনৈতিক ও ধর্মীয় নেতৃত্ব এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছেন৷ বার্লিনসহ জার্মানির বিভিন্ন শহরে জার্মানরা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করেছেন৷ তাঁরা টুপি পরে বিক্ষোভে শামিল হয়েছেন৷ আক্রান্ত একজনের মাথায় যে টুপি ছিল, সেটিকে জাতিবিদ্বেষের বিরুদ্ধে আন্দোলনের চিহ্নরূপে বার্লিনের ইহুদি জাদুঘরে রাখা হয়েছে৷

পিএস/এসিবি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়