ইসরায়েলের জেল ভাঙলেন পাঁচ ফিলিস্তিনি | বিশ্ব | DW | 07.09.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইসরায়েল

ইসরায়েলের জেল ভাঙলেন পাঁচ ফিলিস্তিনি

হলিউডি ছবির মতো পাঁচ ফিলিস্তিনি বন্দি ইসরায়েলের জেল ভেঙেছেন। তাদের খুঁজতে চিরুনি তল্লাশি শুরু করেছে ইসরায়েলের প্রশাসন।

ইসরায়েলের গিলবোয়া জেল বিশ্বের হাই সিকিওরিটি জেলগুলির অন্যতম। গত কয়েক দশকে বহু ফিলিস্তিনি আন্দোলনকারীকে এই জেলে বন্দি করা হয়েছে। সেই জেল ভেঙে পালিয়েছেন পাঁচ ফিলিস্তিনি বন্দি। রীতিমতো সুড়ঙ্গ কেটে তারা জেল থেকে পালিয়েছেন। ইসরায়েলের পুলিশ, সেনা এবং গোয়েন্দারা ওই বন্দির খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত তাদের খবর মেলেনি। অনেকেই মনে করছেন তারা ওয়েস্ট ব্যাঙ্কে আশ্রয় নিয়েছেন।

সোমবারই ওই ফিলিস্তিনি বন্দিদের জেল ভাঙার খবর সামনে আসে। স্বয়ং ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট ওই ঘটনা নিয়ে মন্তব্য করেছেন। ঘটনাটিকে অনভিপ্রেত বলে দাবি করে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রতি মুহূর্তের আপডেট তাকে দেওয়া হচ্ছে।

বন্দিদের খোঁজে কুকুরও নামানো হয়েছে। ওয়েস্ট ব্যআঙ্কের উপর সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার ঘুরছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত তাদের খবর পাওয়া যায়নি।

গিলবোয়া জেল ইসরায়েলের কুখ্যাত জেলগুলির অন্যতম। ওই জেল ভাঙা যায়, এমন কল্পনাই কেউ করতে পারেন না বলে স্থানীয় মানুষের দাবি। সেই নিরাপত্তা ভেঙে পালিয়েছেন পাঁচ বন্দি। জেল সূত্র সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, একটি সিঙ্কের তলা থেকে সুড়ঙ্গ কাটা হয়েছিল। যা জোড়া হয়েছিল জেলের বাইরের গর্তের সঙ্গে। ভিতরে এবং বাইরে দীর্ঘদিন ধরে ওই সুড়ঙ্গ কাটার কাজ হয়েছে বলে জেল কর্তৃপক্ষের দাবি। কিন্তু জেল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি টেরই পাননি। জেলের বাইরে সেই সুড়ঙ্গপথের ছবি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের হাতে এসেছে।


যারা পালিয়েছেন, তাদের প্রত্যেককেই সন্ত্রাসের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। জেল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, যারা পালিয়েছsন, তাদের বয়স ২৬ থেকে ৪৯ এর মধ্যে। এর মধ্যে একজন আল-আকসা ব্রিগেডের সদস্য ।

ঘটনার কথা জানাজানি হওয়ার পরে একাধিক মুসলিম সংগঠন পলাতক বন্দিদের অভিনন্দন জানিয়েছেন। ইসলামিক জিহাদ গোষ্ঠীর মুখপাত্র দাউদ সেহাব বলেছেন, ''অসাধারণ সাহসের পরিচয় দিয়েছেন ওই পাঁচ বন্দি। ইসরায়েলের গর্ব চূর্ণ হলো। তাদের জেলও যে ভাঙা যায়, তা স্পষ্ট হয়ে গেল।''

হামাসও ওই বন্দিদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেছে, এর ফলে স্বাধীনতার আন্দোলন আরো শক্তিশালী হবে।

এসজি/জিএইচ (এএফপি, এপি)