ইরান সংকট কি বাংলাদেশের মুসলমানদের উপর প্রভাব ফেলবে? | বিশ্ব | DW | 06.01.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

সংবাদভাষ্য

ইরান সংকট কি বাংলাদেশের মুসলমানদের উপর প্রভাব ফেলবে?

শিয়া আর সুন্নি প্রশ্নে গোটা মুসলিম বিশ্বই দুইভাগে বিভক্ত৷ তবে ব্যতিক্রম বাংলাদেশ৷ মোটা দাগে এই দেশের মুসলমানদের মধ্যে শিয়া-সুন্নি সংঘাতের কোনো উদাহরণ নেই৷

ইরানের জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হত্যার পর গোটা মধ্যপ্রাচ্য এখন ভয়াবহ এক সঙ্কটের মুখোমুখি৷ বাজছে যুদ্ধের দামামা৷ প্রতিনিয়তই পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটছে৷ এর মধ্যে ইসরায়েল, যুক্তরাজ্য, ইউরোপীয় ইউনিয়ন নিজেদের মতো করে এই হত্যাকাণ্ডের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে৷ শুধু চুপ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশগুলোই৷ হামলাটি ইরাকে হয়েছে, স্বভাবতই সেই দেশটি নড়েচড়ে বসতে বাধ্য হয়েছে৷ কিন্তু বাকিরা?

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো বরাবরই শিয়া-সুন্নি ইস্যুতে বিভক্ত থেকেছে, এ নিয়ে প্রতিনিয়ত তাদের রক্তাক্ত সংঘাতের ঘটনা ঘটে৷  বিশ্বের দেড়শো কোটি মুসলমানের মধ্যে ৮৫-৯০ ভাগ সুন্নি সম্প্রদায়ের বলে ধরে নেয়া হয়৷ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে মিশর, জডার্ন আর সৌদি আরবে সুন্নিদের হার নব্বইভাগের মতো৷ অন্যদিকে ইরান, ইরাক, বাহরাইন, আজারবাইজান আর ইয়েমেনে শিয়ারা সংখ্যাগরিষ্ঠ৷ সোলেইমানির হত্যাকাণ্ড এইসব দেশের শিয়া-সুন্নি বিভেদকে আরেকদফা উসকে দেয়ার সম্ভাবনা আছে৷ কেননা কাসেম সোলেইমানি মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে শিয়াদের নতুন প্রভাববলয় তৈরিতে ভূমিকা রেখেছেন৷ বিভিন্ন দেশের শিয়াগোষ্ঠীকে সামরিক সহায়তা দেয়া থেকে শুরু করে সিরিয়ায় আইএস এর বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইরানের পক্ষ থেকে তিনিই নেতৃত্ব দিয়েছিলেন৷

সাবেক সিআইএ অ্যানালিস্ট কেনেথ পোলাক টাইম ম্যাগাজিনে সোলেইমানি সম্পর্কে লিখেছেন, ‘‘মধ্যপ্রাচ্যের শিয়াদের কাছে কাসিম সোলেইমানি একাধারে জেমস বন্ড, আরউইন রোমেল এবং লেডি গাগার সম্মিলিত এক চরিত্র৷'' ঠিক একই কারণে তিনি সুন্নিদের কাছে অপ্রিয়৷ তার হত্যাকাণ্ড নিয়ে তৈরি হওয়া সঙ্কট মধ্যপ্রাচ্যের মুসলিমদের দুই সম্প্রদায়ের বিভেদকে তাই আরো নাজুক করে তোলার সম্ভাবনা রয়েছে৷ এই প্রভাব কি বাংলাদেশে পড়বে?

বাংলাপিডিয়ার তথ্য বলছে, এই অঞ্চলে শিয়া মতবাদ প্রচারিত হয় সতেরো শতকের প্রথম ভাগে পারস্যের বনিক ও পর্যটকদের মাধ্যমে৷ গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী বর্তমানে বাংলাদেশে শিয়াদের সংখ্যা দশ লাখের মতো৷ এরমধ্যে ঢাকায় বাস করেন দুই লাখ৷ আপাতদৃষ্টিতে দেশে শিয়া আর সুন্নিদের মধ্যে কোনো বিভেদ নেই৷

DW-Mitarbeiter Porträt Faisal Ahmed (Masum Billah)

ফয়সাল শোভন, ডয়চে ভেলে

আশুরায় ঢাকার বিভিন্ন স্থানে শিয়া সম্প্রদায়ের মানুষে তাদের ঐতিহ্যবাহী তাজিয়া মিছিল করে আসছে বছরে পর বছর ধরে৷ যা নিয়ে উৎসাহ থাকে অনেক সুন্নির মধ্যেও৷ ২০১৫ সালে অবশ্য একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে৷ সেবার বোমা হামলায় নিহত হয়েছিলেন একজন৷ কিন্তু দেশের শিয়া-সুন্নির সম্প্রীতির সম্পর্কে তার কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়েনি৷

পাকিস্তান, আফগানিস্তান এমনকি ইন্দোনেশিয়াতেও শিয়ারা সুন্নিদের দমন পীড়নের শিকার হয়েছে এবং এখনও হচ্ছে৷ বৈশ্বিক পরিমণ্ডলে এসব সংঘাতের তিক্ততায় বাংলাদেশের মানুষ আগে যখন জড়ায়নি, সামনেও জড়াবে না এমনটাই প্রত্যাশা৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন