ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা চান জার্মান অ্যাথলেটরা | বিশ্ব | DW | 14.09.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইরান

ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা চান জার্মান অ্যাথলেটরা

সরকারবিরোধী বিক্ষোভের সময় একজন নিরাপত্তা কর্মীকে হত্যার দায়ে শনিবার ইরানে পেশাদার কুস্তিগীর নাভিদ আফকারির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে৷ এই ঘটনায় ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা চেয়েছেন জার্মান অ্যাথলেটরা৷

নাভিদ আফকারি

নাভিদ আফকারি

রবিবার এক বিবৃতিতে জার্মানির পেশাদার অ্যাথলেটদের সংগঠন ‘অ্যাথলেটস জার্মানি’ বলেছে, ‘‘আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি ও ইউনাইটেড ওয়ার্ল্ড রেসলিং অ্যাথলেটদের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে শক্ত ব্যবস্থা নেবে বলে আমরা আশা করছি... নিষেধাজ্ঞার বিষয়টিও এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত৷’’

অ্যাথলেটস জার্মানি জার্মান সরকারের সহায়তাপুষ্ট খেলাধুলা নিয়ে কাজ করা একটি অ্যাডভোকেসি গ্রুপ৷

অ্যাথলেটদের আরেক সংগঠন ‘গ্লোবাল অ্যাথলেট’ ইরানকে এই ‘জঘন্য অপরাধের’ জন্য অবিলম্বে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন থেকে বহিষ্কারের আবেদন জানিয়েছে৷

২০১৭ সালের ডিসেম্বরে ইরান সরকারের অর্থনৈতিক ও সামাজিক নীতির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল৷ কুস্তিগীর নাভিদ আফকারি সিরাজ শহরে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন৷ সেই সময় তিনি একজন নিরাপত্তা কর্মীকে হত্যা করেন বলে সরকার তার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিল৷ চলতি মাসের শুরুতে মামলার রায়ে আফকারিকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হলে আন্তর্জাতিকভাবে সমালোচনা শুরু হয়৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পও সমালোচনা করেছিলেন৷

ইরান বলেছে, আফকারি হত্যার দায় স্বীকার করেছে৷ কিন্তু তার পরিবার ও বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন বলছে, নির্যাতন করে তাকে হত্যার কথা স্বীকার করতে বাধ্য করা হয়েছে৷

ভয়েস অফ অ্যামেরিকার রিপোর্টার ও অ্যাক্টিভিস্ট মাসিহ আলিনেজাদ টুইটারে লিখেছেন, ‘‘আমরা ইরানের জনগণ ক্ষুব্ধ, কারণ ইসলামিক রিপাবলিক বিক্ষোভে অংশ নেয়ার কারণে আমাদের একজনকে হত্যা করেছে, যা একবিংশ শতাব্দীতে গ্রহণযোগ্য নয়৷’’

লেয়া কার্টার/জেডএইচ

৩ ফেব্রুয়ারির ছবিঘরটি দেখুন...

বিজ্ঞাপন