1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ইরাকে ইসলামিক ডেমোক্রেসি প্রতিষ্ঠা করতে চান আল-সদর।ছবি: Ahmed Saad/REUTERS

ইরাকে জিতছে আল-সদরের দল

১২ অক্টোবর ২০২১

ইরাকে পার্লামেন্ট নির্বাচনে শিয়া ধর্মীয় নেতা মোকতাদা আল-সদরের দল অন্যদের তুলনায় বেশি আসনে জিতেছে।

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%87%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%9C%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A6%9B%E0%A7%87-%E0%A6%86%E0%A6%B2-%E0%A6%B8%E0%A6%A6%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%A6%E0%A6%B2/a-59475692

এবার ইরাকের পার্লামেন্ট নির্বাচনে খুব বেশি ভোট পড়েনি। বিশেষ করে যুবরা খুব বেশি ভোট দেয়নি। সেই নির্বাচনের প্রাথমিক ফলে দেখা যাচ্ছে, শিয়া ধর্মীয় নেতা আল-সদরের দলের প্রার্থীরাই সব চেয়ে বেশি আসনে জিতেছেন। সরকারি কর্মকর্তারা সোমবার এই তথ্য দিয়েছেন।

ইরাকের পার্লামেন্টে ৩২৯ আসনের জন্য নির্বাচন হয়। আল-সদরের দলের এক কর্মকর্তা সংবাদসংস্থা এএফপি-কে জানিয়েছেন, তারা ইতিমধ্যে ৭৩টি আসনে জিতেছেন। ২০১৮ সালে আল-সদরের দলের নেতৃত্বাধীন জোট ৫৪টি আসনে জিতেছিল। শিয়াদের মধ্যে তারাই সব চেয়ে বড়  ব্লক হতে চলেছে। ২০০৩ পরবর্তী সময়ে আল-সদর কিংমেকারের ভূমিকা পালন করছেন। তিনি যথেষ্ট জনপ্রিয় ধর্মীয় নেতা। তিনি ইরাকে বিদেশি হস্তক্ষেপের বিরোধী। তিনি অ্যামেরিকার হস্তক্ষেপ পছন্দ করেন না। ইরানেরও নয়।

প্রাথমিক ফলাফলে দেখা যাচ্ছে, সংস্কারপন্থিরা অনেকগুলি আসনে জিতেছেন। স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইরানপন্থিরা আগেরবারের তুলনায় অনেক কম আসনে জিতেছে।

২০০৩ সালে সাদ্দাম হোসেনের পতন ও অ্যামেরিকার ইরাকে আগমনের পর থেকে শিয়া গোষ্ঠীগুলি এবং কুর্দিরাই সরকারকে নিয়ন্ত্রণ করেছে।

গত রোববার রাতে ইরাকের নির্বাচন কমিশন জানিয়েছিল, মাত্র ৪১ শতাংশ ভোট পড়েছে। তার মধ্যে বাগদাদে ভোটের হার ছিল ৩১ থেকে ৩৪ শতাংশের মধ্যে।

জিএইচ/এসজি (রয়টার্স, এপি, এএফপি)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Bangladesch Angriffe auf Hindu-Tempel während Durga-Puja-Feierlichkeit

দুর্গাপূজায় হামলা, অভিযুক্তরা মুক্ত

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান