ইমপিচমেন্টের ‘ভূত′ তাড়া করে বেড়াচ্ছে ট্রাম্পকে | বিশ্ব | DW | 05.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্র

ইমপিচমেন্টের ‘ভূত' তাড়া করে বেড়াচ্ছে ট্রাম্পকে

লন্ডনে ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলনে ‘উপহাসের' পাত্র হয়ে চরম বিরক্তি প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প৷ তিন জন আইন বিশেষজ্ঞ ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট প্রক্রিয়ার পক্ষে সওয়াল করেছেন৷

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প তাঁর বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট প্রক্রিয়ার কারণে কতটা উদ্বিগ্ন, বিদেশ সফরেও তা স্পষ্ট হয়ে উঠছে৷ লন্ডনে ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে গিয়ে তিনি অপেক্ষাকৃত ‘সংযত' ছিলেন, অতীতের মতো বেফাঁস মন্তব্য করে বাকি নেতাদের অস্বস্তি বাড়িয়ে তোলেননি৷ তা সত্ত্বেও বিতর্ক ট্রাম্পের পেছন ছাড়েনি৷ উপস্থিত নেতাদের একান্ত কথোপকথনের একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ার পর তিনি চরম বিরক্তি প্রকাশ করেছেন৷ সেই ভিডিওতে ক্যানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁ, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে নিয়ে রসিকতা করছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে৷ এমন উপহাসের পাত্র হয়ে ট্রাম্প ট্রুডোকে ‘দুমুখো' এবং মাক্রোঁকে ‘ন্যাস্টি' বা জঘন্য হিসেবে বর্ণনা করেন৷

নেতাদের সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করলেও সামরিক জোট হিসেবে ন্যাটোর ইতিবাচক মূল্যায়ন করেছেন ট্রাম্প৷ নির্বাচনের বছরে তিনি ন্যাটোর ‘গৌরব' ফেরানোর কৃতিত্ব দাবি করেছেন৷ ট্রাম্পের মতে, তাঁরই চাপের কারণে সদস্য দেশগুলি প্রতিরক্ষা খাতে ব্যয় বাড়াতে বাধ্য হয়েছে৷ এমনকি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট মাক্রোঁ সম্প্রতি ট্রাম্পের নেতৃত্বে ন্যাটোকে ‘ব্রেন ডেড' হিসেবে বর্ণনা করে যে বিতর্কের সৃষ্টি করেছেন, সেই মন্তব্যেরও তীব্র সমালোচনা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷

লন্ডনেও ইমপিচমেন্ট তদন্তের কালো ছায়া ট্রাম্পকে তাড়া করে বেরিয়েছে৷ ওয়াশিংটনে সংসদীয় কমিটির এক শুনানির সময় নির্ধারিত এক সংবাদ সম্মেলন আচমকা বাতিল করেন তিনি৷ ট্রাম্প বিরোধী ডেমোক্র্যাটিক দলের নেতাদের দেশাত্মবোধ নিয়েও প্রশ্ন তোলেন৷ তবে তাঁর ব্যক্তিগত আইনজীবী রুডি জুলিয়ানির বিতর্কিত আচরণ সম্পর্কে তথ্য ফাঁস হওয়ায় কিছুটা কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন তিনি৷ সাংবাদিকদের সামনে তিনি বলেন, জুলিয়ানি কেন হোয়াইট হাউসের ব্যবস্থাপনা ও বাজেট দপ্তরের সঙ্গে সরাসরি কথা বলেছেন, সে বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না৷

এদিকে বুধবার মার্কিন সংসদের বিচার বিভাগীয় কমিটির সামনে তিন জন আইনের প্রোফেসর ইমপিচমেন্ট সম্পর্কে তাঁদের মূল্যায়ন পেশ করেছেন৷ তিন জন আইন বিশেষজ্ঞের মতে, ট্রাম্প যেভাবে রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীর কার্যকলাপের তদন্ত করতে ইউক্রেনের উপর চাপ সৃষ্টি করেছেন, সেই অপরাধ অবশ্যই ইমপিচমেন্টের কারণ হতে পারে৷ বিরোধী ডেমোক্র্যাটিক দল রবার্ট মালারের নেতৃত্বে রাশিয়া সংক্রান্ত তদন্তের ফলাফলের কিছু অংশকেও ইমপিচমেন্টের কারণ হিসেবে বিবেচনা করছে৷ চলতি মাসেই এ বিষয়ে সংসদের নিম্ন কক্ষে ভোটাভুটির উদ্যোগ নিচ্ছে বিরোধীরা৷

এসবি/এসিবি (এপি, এএফপি)

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন