ইন্দোনেশিয়ায় মসজিদভিত্তিক শিক্ষায় গুরুত্ব পাচ্ছে পরিবেশ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 30.10.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জাকার্তা

ইন্দোনেশিয়ায় মসজিদভিত্তিক শিক্ষায় গুরুত্ব পাচ্ছে পরিবেশ

পরিবেশ সংরক্ষণে শিশুদের সচেতন করতে অপ্রথাগত পদ্ধতিকে গুরুত্ব দিচ্ছে ইন্দোনেশিয়ার উলামা কাউন্সিল (মজলিসে উলামা)৷

রাজধানী জাকার্তায় জলবায়ু পরিবর্তন এবং পরিবেশ সংরক্ষণ নিয়ে এক সম্মেলনের ফাঁকে ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের সঙ্গে এ প্রসঙ্গে কথা বলেন দেশটির সর্বোচ্চ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানটির এক নেতা৷

ডয়চে ভেলে এবং ইন্দোনেশিয়ার সিভিল সোসাইটি সংগঠন ওয়াহিদ ফাউন্ডেশন যৌথভাবে এই সম্মেলনের আয়োজক৷

জাকার্তার ডাবলট্রি হোটেলে দু'দিন ব্যাপী এই সম্মেলন শুরু হয় বুধবার। ইন্দোনেশিয়া, বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের ধর্মীয় নেতা, পরিবেশবিদ, পরিবেশ আন্দোলনের কর্মী, সংবাদিকসহ প্রায় শ'খানেক মানুষ এতে অংশ নিয়েছে৷

উলামা কাউন্সিলের এনভায়রনমেন্ট ডিপার্টমেন্টের প্রধান হায়ু প্রাবোয়ো বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ‘‘পরিবেশ সংরক্ষণের বিষয়ে আমরা শিশুদের মসজিদকেন্দ্রিক শিক্ষার ওপর জোর দিচ্ছি৷ ধর্মীয় বোর্ডিং স্কুলে যেসব শিশু পড়ছে তাদের আমরা পরিবেশ সম্পর্কে সচেতন করছি৷’’

মসজিদকেন্দ্রিক শিক্ষার ওপর জোর দেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, "যেসব শিশু ইসলামিক বোর্ডিং স্কুলে পড়ছে তারা মসজিদের নিয়মিত যাচ্ছে। অন্য মানুষরাও মসজিদে আসছে, নামাজ পড়ছে, একত্র হচ্ছে৷’’

উলামা কাউন্সিলের নেতা হায়ু ইন্দোনেশিয়ায় ‘ইকো-মসজিদ' প্রতিষ্ঠার প্রধান উদ্যোক্তা৷ বৃষ্টির পানি সংরক্ষরণ করে ওজুর জন্য ব্যবহার, বিদ্যুৎ সংক্ষরণ, গাছ রোপণসহ বিভিন্ন পরিবেশসম্মত পদক্ষেপের জন্য ইকো-মসজিদের ধারণা ইন্দোনেশিয়ায় জনপ্রিয় হচ্ছে৷

২০২০ সালের মধ্যে অন্তত এক হাজার ইকো-মসজিদ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছে মজলিসে উলামা

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের এক প্রশ্নের জবাবে হায়ু বলেন, ‘‘আমরা ইকো মসজিদের ধারণা এজন্যই এনেছি যে, শুধু নামাজ না, মসজিদ পরিবেশ সংরক্ষণের জন্যও ব্যবহার হতে পারে৷’’

তিনি বলেন, ‘‘এখানে আমরা শিক্ষা দিতে পারছি কিভাবে গাছের চারা রোপণ করতে হবে, পানি সংরক্ষণ করতে হবে৷ আমাদের এই মুহূর্তে পাঠ্যক্রম নেই৷ প্রথমে আমরা শিশুদের পরিবেশ সম্পর্কে, এর সংরক্ষণ সম্পর্কে শিক্ষা দিচ্ছি৷ আর সেটা হচ্ছে অপ্রথাগতভাবে৷ আমরা তাদের সচেতন করছি৷‘‘

তিনি বলেন, ‘‘বোর্ডিং স্কুলে আমরা এই শিক্ষাটাই দিচ্ছি- কিভাবে জ্বালানি সংরক্ষণ করতে হবে, পানি সংরক্ষণ করতে হবে এবং এই শিক্ষাটা দিচ্ছি অপ্রথাগতভাবে৷ পাঠ্যক্রমে এসব বিষয় অন্তর্ভুক্ত করাটা অনেক সময় জটিল৷ সেকারণে অপ্রথাগত পদ্ধতি নিয়েছি আমরা৷ যেটা থেকে ভালো ফল পাওয়া যায়৷‘‘

‘মুসলিম রিপ্রেজেন্ট আ মডেল ফর এনয়ভায়রনমেন্ট স্টুয়ার্ডশিপ' শীর্ষক ওই সেমিনারে মুসলিম তরুণদের উগ্রবাদ এবং সহিংসতা থেকে দূরে রেখে পরিবেশ সুরক্ষার মত গুরুত্বপূর্ণ কাজে অংশগ্রহণে উদ্বুদ্ধ করার কৌশলগত এবং উদ্ভাবনী পথ খুঁজতেও আলোচনা হবে৷

পরিবেশ সুরক্ষায় কোরান এবং হাদিসের নির্দেশনাকে বাস্তবে রূপ দেওয়ার পথ খুঁজতে এই সেমিনার সহায়ক হবে বলে আয়োজকরা আশা করছেন৷

এডিকে/ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন