ইকুয়েডরের প্রেসিডেন্ট হলেন সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা | বিশ্ব | DW | 12.04.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইকুয়েডর

ইকুয়েডরের প্রেসিডেন্ট হলেন সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা

বামপন্থি অর্থনীতিবিদ আন্দ্রেস আরাউজকে হারিয়ে ইকুয়েডরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেন সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা রক্ষণশীল দলের গুইলারমো লাসো৷

৯৬ শতাংশ ভোট গণনা হয়েছে, যার মধ্যে লাসো পেয়েছেন ৫২.৫ শতাংশ ভোট৷ রোববার ভোট গণনার পর নিজেকে জয়ী ঘোষণা করেছেন লাসো৷ তার প্রতিদ্বন্দ্বী আরাউজ পেয়েছেন ৪৭.৪ শতাংশ ভোট৷ তিনি পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছেন৷

লাসো তার বিজয় ভাষণে সমর্থকদের উদ্দেশে বলেছেন, ‘‘আজকের দিনে ইকুয়েডরের মানুষ তাদের ভবিষ্যত নির্ধারণ করেছেন৷ তারা পরিবর্তনের জন্য ভোট দিয়েছেন, সুন্দর আগামীর জন্য ভোট দিয়েছেন৷''

অন্যদিকে, আরাউজ ভোটের ফলাফল ঘোষণার পর জানিয়েছেন, ‘‘আমি লাসোকে অভিনন্দন জানাই এবং আমি তাকে আমাদের গণতন্ত্রের প্রতি বিশ্বাসের পথ দেখাবো৷''

ফেব্রুয়ারিতে প্রথম দফা নির্বাচনে অবশ্য জয়ী হয়েছিলেন আরাউজ৷ কিন্তু সেই নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাননি৷ রোববার সকাল পর্যন্ত ফলাফলে ১.৬ ভাগ ভোটে এগিয়ে থাকার পর নিজেকে নির্বাচিত ঘোষণাও করেছিলেন বামপন্থি দলের নেতা৷

লাসো ট্যাক্স বা কর কমানোর পক্ষে, তিনি মনে করেন এর ফলে অর্থনীতি চাঙা হবে৷ তিনি এর আগেও দুইবার প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচন করেছিলেন৷ অন্যদিকে, আরাউজ ধনীদের কর বাড়ানোর পক্ষে ছিলেন৷ ইকুয়েডরের বর্তমান প্রেসিডেন্ট লেনিন মোরেনো খুবই অজনপ্রিয়৷ তার স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন লাসো৷ টুইটে লাসোকে অভিনন্দন জানিয়ে তার সাফল্য কামনা করেছেন মোরেনো৷

করোনা মহামারীর কারণে ইকুয়েডর স্বাস্থ্য ও অর্থনৈতিক খাতে ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখে রয়েছে৷ ফলে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর লাসোর জন্য বড় চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে৷

এপিবি/কেএম (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়