ইউরোপের জন্য কালো দিন: শলৎস | NRS-Import | DW | 24.02.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইউরোপ

ইউরোপের জন্য কালো দিন: শলৎস

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে টেলিফোন সংলাপে জার্মান চ্যান্সেলর শলৎস পূর্ণ সংহতি জানিয়েছেন৷ জার্মানির রাজনীতি জগতও রাশিয়ার আগ্রাসনের তীব্র নিন্দা জানিয়ে জোরালো প্রতিক্রিয়ার ডাক দিচ্ছে৷

ইউক্রেনের ভূখণ্ডে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের তীব্র নিন্দা করেন জার্মান চ্যান্সেলর

ইউক্রেনের ভূখণ্ডে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের তীব্র নিন্দা করেন জার্মান চ্যান্সেলর

ইউক্রেনের ভূখণ্ডে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের তীব্র নিন্দা করে ওলাফ শলৎস বলেন, এই দিনটি ইউক্রেনের জন্য ভয়াবহ এক দিন তো বটেই, সেইসঙ্গে ইউরোপের জন্যও কালো এক দিন৷ এমন পদক্ষেপের পক্ষে কোনো যুক্তি থাকতে পারে না৷ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিনের উদ্দেশ্যে অবিলম্বে এই সামরিক অভিযান বন্ধ করার ডাক দেন শলৎস৷ তার মতে, এই পদক্ষেপের মাধ্যমে রাশিয়া আন্তর্জাতিক আইন স্পষ্টত লঙ্ঘন করেছে৷ শলৎস জি-সেভেন, ন্যাটো ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে সংগঠিত প্রতিক্রিয়ার পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন৷ বৃহস্পতিবার সকালে শলৎস টেলিফোনে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন এবং ইউক্রেনের প্রতি পূর্ণ সংহতি প্রকাশ করেন৷

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি অধিবেশনে জার্মানির রাষ্ট্রদূত আন্টিয়ে লেয়েনডেয়ারটসে বলেন, এই আগ্রাসনের কারণে রাশিয়াকে অভূতপূর্ব রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও নৈতিক মূল্য দিতে হবে৷ জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক তার টুইট বার্তায় লেখেন, ইউক্রেনের উপর হামলার মাধ্যমে রাশিয়া আন্তর্জাতিক নিয়মভিত্তিক কাঠামোর মূলে আঘাত করেছে৷ আন্তর্জাতিক সমাজ লজ্জার এই দিনটি কখনো ভুলবে না৷

জার্মানির রাজনৈতিক মহলেও ইউক্রেনের ভূখণ্ডে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে৷ ভাইস চ্যান্সেলর এবং অর্থনীতির দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী রোব্যার্ট হাবেক বলেন, যা এতকাল অবিশ্বাস্য মনে হতো, তা এবার ঘটছে৷ ইউরোপে পুরোপুরি স্থলযুদ্ধ শুরু হয়ে গেল, যেমনটা শুধু ইতিহাসের বইয়ে পড়া যায় বলে এতকাল ধারণা ছিল৷ ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার সচেতন আগ্রাসনের ফলে অনেক মানুষের জীবনে দুঃখ-কষ্ট নেমে আসবে বলে হাবেক মন্তব্য করেন৷

পুটিনের ঘোষণার পর ইউক্রেনের খণ্ডচিত্র

ক্ষমতাসীন জোটের শরিক উদারপন্থি এফডিপি দলের প্রতিরক্ষা নীতি বিশেষজ্ঞ আলেক্সান্ডার ম্যুলার এক টুইট বার্তায় লেখেন, গত ৮০ বছরে ইউরোপের উপর এমন সামরিক হামলা হয়নি৷ তার মতে, এটা কোনো সামরিক সংঘাত নয়, পুরোপুরি হামলা ঘটছে৷ এসপিডি দলের পররাষ্ট্র বিশেষজ্ঞ ও সংসদের পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটির প্রধান মিশায়েল রোট তার টুইট বার্তায় ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার আগ্রাসনের তীব্র নিন্দা করে বলেন, পুটিনকে ঘিরে শিল্পপতিদের গোটা প্রণালী এতকাল পশ্চিমা বিশ্বের যে আর্থিক সুযোগ-সুবিধা উপভোগ করে এসেছে, তা এবার পুরোপুরি বন্ধ করতে হবে৷

এসবি/এসিবি (ডিপিএ, রয়টার্স)