ইউরোপের একমাত্র উট দুগ্ধ খামার নেদারল্যান্ডসে | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 26.11.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

ইউরোপের একমাত্র উট দুগ্ধ খামার নেদারল্যান্ডসে

বেদুইনরা উটের দুধকে গণ্য করে মহৌষধ হিসেবে৷ এশিয়া ও আফ্রিকায় মনে করা হয়, উটের দুধে রয়েছে রোগ নিরাময়ের চমৎকার ক্ষমতা৷ ইউরোপেও এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে উটের দুধ৷ এরই মধ্যে নেদারল্যান্ডস’এ গড়ে উঠেছে ইউরোপের প্রথম উট খামার৷

default

জার্মানিতেও উট আসছে এখন

আমস্টারডাম শহরের একটি এলাকা ডেন বশ৷ সেখানে জলজ্যান্ত তিনটি উট দেখে পুলিশ কর্মকর্তারা প্রথমে নিজেদের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলেন না, তারা আসলেই উট দেখছেন কিনা! সেখানে বসবাসকারী মরোক্কোর অভিবাসীরা অবশ্য পুলিশকে জানিয়েছিলো, উটগুলো তাদের নয়৷ উটগুলোর মালিক এক ছাত্র এবং তিনি সেই এলাকারই বাসিন্দা৷ এটা ২০০৬ সালের কথা৷ আজ সেই ছাত্র ফ্রাঙ্ক স্মিটস ইউরোপের একমাত্র উটের খামারের মালিক৷

‘‘উট আমার ভালোবাসা,'' খোলাখুলি মন্তব্য এই কৃষি বিজ্ঞানীর৷ তিনি বলেন,‘‘সব পশুদের মধ্যে উটই একমাত্র প্রাণী যার দুধের গুণাগুণ মায়ের দুধের কাছাকাছি৷''

Trampeltier

উটের দুধের গুনাগুন মায়ের দুধের কাছে

জার্মান এক মহিলা বলেন, ‘‘এর স্বাদ গরুর সর তোলা দুধের মতো৷ যদি সুপার মার্কেটগুলোতে উটের দুধ পাওয়া যেতো, তাহলে আমি সেই দুধই কিনতাম৷'' আর সাতাশ বছর বয়েসি স্মিথের স্বপ্নও সেটি৷ প্রত্যেক সুপার মার্কেটে উটের দুধ পৌঁছে দেওয়া৷ স্মিথ এরইমধ্যে উটের দুধ দোয়ানোর জন্য এক ধরণের যন্ত্রও উদ্ভাবন করেছেন৷

বর্তমানে পঞ্চাশটি উটের মালিক স্মিটস৷ তিনি বলছেন,‘‘উটের দুধ গরুর দুধের চেয়ে পুষ্টিকর৷ এর মধ্যে ফ্যাট খুব কম৷ চিনি নেই বললেই চলে৷ কিন্তু এতে প্রচুর খনিজ পদার্থ এবং ভিটামিন সি রয়েছে৷'' এই দুধে বেটা এবং ল্যাকটো গ্লোবুলিনের মতো প্রোটিন নেই, যে প্রোটিনগুলোর কারণে অনেকের অ্যালার্জি হয়৷

ফ্রাঙ্কের বাবা মার্সেল স্মিটস একজন ডাক্তার৷ তিনি বলেন, ‘‘ডায়াবেটিসের রোগীরা যদি প্রত্যেকদিন উটের দুধ পান করেন তাহলে তাঁরা এ থেকে উপকার পাবেন৷ এটা ইউরোপের নতুন স্বাস্থ্যকর খাবারগুলোর মধ্যে একটিতে পরিণত হতে পারে৷''

উটের দুধের পুষ্টিগুণের কারণে হাজার হাজার বছর ধরে আরবের বেদুইন এবং উত্তর আফ্রিকার লোকজন উট পালন করে আসছে৷ জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা অনেকদিন আগেই অন্য যেকোনো দুধের চেয়ে উটের দুধকে বেশি পুষ্টিকর হিসেবে অনুমোদন করেছে৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

বিজ্ঞাপন