ইউরোজোনের আঠারোতম সদস্য লাটভিয়া | জার্মানি ইউরোপ | DW | 03.01.2014
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি ইউরোপ

ইউরোজোনের আঠারোতম সদস্য লাটভিয়া

চলতি বছরের শুরুতে ইউরো জোনে যোগ দিয়েছে লাটভিয়া৷ ফলে অভিন্ন মুদ্রা ইউরো চালু আছে এমন দেশের সংখ্যা এখন দাঁড়ালো আঠারোটি৷ ইউরো জোনে যোগ দেওয়ার আগে অবশ্য লাটভিয়াকে কঠিন পরীক্ষা দিতে হয়েছিল৷

লাটভিয়ায় আর্থিক মন্দা ইউরো জোনে তাদের প্রবেশের পথকে বন্ধুর করে তুলেছিল৷ কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে মন্দা কাটিয়ে ওঠায় উল্লেখযোগ্য সাফল্য দেখিয়েছে দেশটি৷ ফলে গত গ্রীষ্মে ইউরো জোনের সদস্য হিসেবে লাটভিয়াকে অন্তর্ভুক্ত করতে সম্মত হয় ইউরোপীয় ইউনিয়ন৷ আর তা কার্যকর হলো ২০১৪ সালের পহেলা জানুয়ারি থেকে৷

লাটভিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভাল্দিস দমব্রভস্কিস মঙ্গলবার মধ্যরাতে হাতে তুলে নেন দশ ইউরোর একটি নোট৷ তিনি আশা করেন, লাটভিয়ার অর্থনৈতিক উন্নয়নে ইউরো মুদ্রা এক নতুন অধ্যায় শুরু করবে৷ দমব্রভস্কিস বলেন, ‘‘লাটভিয়ার অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির জন্য এটা এক নতুন সুযোগ৷''

ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট জোসে মানুয়েল বারোসো এক বিবৃতিতে লাটভিয়ার সদস্যপদকে স্বাগত জানিয়েছেন৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘এটা শুধু লাটভিয়া নয়, গোটা ইউরো এলাকার জন্যই বড় ঘটনা৷'' ইউরো জোন নতুন সদস্যদের স্বাগত জানানোর ব্যাপারে উদার বলেও জানান বারোসো৷

ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান মারিও দ্রাগি লাটভিয়াকে সরকারি বাজেট সমন্বয়ের ক্ষেত্রে এক মডেল হিসেবে তুলনা করেছেন৷ ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা বলেন তিনি৷

Lettland Währung Euro 1. Januar 2014

ইউরোর নোট হাতে লাটভিয়ার এক তরুণী

তবে মঙ্গলবার মধ্যরাতে আতশবাজির আলোকচ্ছটা আর জাঁকজমকপূর্ণ ইউরো বরণ উৎসবে বেদনার ছায়াও ছিল৷ লাটভিয়ার কিছু মানুষ এখনো অভিন্ন মুদ্রা ব্যবহার নিয়ে সন্দিহান রয়েছেন৷ তাছাড়া লাটভিয়ার নিজস্ব মুদ্রা ‘লাট'-এর একটা আলাদা গুরুত্বও ছিল৷ সেদেশে মস্কোর নাগাল থেকে স্বাধীনতা প্রাপ্তির এক প্রতীক হিসেবে বিবেচিত ‘লাট'৷

নিজ দেশে ‘লাট' চালুর দুই দশক পর এবার ইউরো মুদ্রা চালু করলো লাটভিয়া৷ কেউ কেউ মনে করছেন, ইউরো মুদ্রা হয়ত তাদের জন্য উপকার নয়, ক্ষতির কারণ হতে পারে৷ কেননা, এস্টোনিয়ায় ২০১১ সালে ইউরো চালুর পর সেদেশে মুদ্রাস্ফীতির পরিমাণ বেড়ে গেছে৷

উল্লেখ্য ২০০৮ এবং ২০০৯ সালর অর্থনৈতিক মন্দার সময় লাটভিয়াও অর্থ সংকটে পড়ে৷ তখন দেউলিয়া হওয়া থেকে রক্ষা পেতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল থেকে ৭ দশমিক পাঁচ বিলিয়ন ইউরো ঋণ নেয় দেশটি৷ এরপর দ্রুতই নিজেদের অর্থনীতিতে স্থিতাবস্থা ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয় লাটভিয়া৷ সর্বশেষ ২০১১-১২ অর্থ বছরে সেদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়ায় পাঁচ শতাংশ৷

এআই/ডিজি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন