ইউক্রেন নিয়ে বৈঠক জার্মানি-রাশিয়া-ফ্রান্সের | বিশ্ব | DW | 12.10.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

রাশিয়া

ইউক্রেন নিয়ে বৈঠক জার্মানি-রাশিয়া-ফ্রান্সের

ইউক্রেন সমস্যা সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিচ্ছে জার্মানি। ফ্রান্সের সহযোগিতায় রাশিয়া এবং ইউক্রেনের রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে বৈঠকের উদ্যোগ।

২০১৪ সাল থেকে ডনবাস বিতর্ক শুরু হয়েছে। বস্তুত, রাশিয়া ক্রিমিয়া দখল করার পর থেকেই ইউক্রেন রাশিয়া সীমান্ত অঞ্চলে সংঘাত শুরু হয়। এ বছরের গোড়ায় সেই সংঘাত চরম পর্যায়ে পৌঁছায়। সোমবার সেই বিতর্ক সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করল জার্মানি এবং ফ্রান্স।

সোমবার জার্মানির বিদায়ী চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল ফোনে কথা বলেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁর সঙ্গে। এরপর ফোনে ধরা হয় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন এবং ইউক্রেনের রাষ্ট্রপ্রধান জেলেনস্কিকে। টেলিফোন বৈঠকে স্থির হয়, দ্রুত একটি বৈঠকের দিন ঠিক করা হবে। সেখানে সকলকে সঙ্গে নিয়ে সমস্যা সমাধানের রাস্তা বার করা হবে।

 

ক্রেমলিনও সংঘাত নিয়ে একটি শীর্ষবৈঠকের ডাক দিয়েছে। তবে সেই বৈঠক কবে হবে, তা তারা জানায়নি। সেখানে ইউক্রেনকে ডাকা হবে কি না, তাও স্পষ্ট করা হয়নি। গত অগাস্টেই রাশিয়া এবং ইউক্রেনে গিয়েছিলেন ম্যার্কেল। সেখান থেকে ফিরে এসেই এই বৈঠকের সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে।

২০১৪ সালে রাশিয়া ক্রিমিয়া দখল করে। ইউক্রেনের সঙ্গে যুদ্ধে ১৩ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছিল। ক্রিমিয়া নিয়ে এখনো দুই দেশের মধ্যে তীব্র সংঘাত আছে। এবং সেখান থেকেই জন্ম হয় ডনবাস বিতর্কের। ২০১৫ সালে এ বিষয়ে একটি শান্তিচুক্তির চেষ্টা হলেও তা সফল হয়নি।

এ বছরের গোড়ায় সীমান্তের কাছে রাশিয়া কিছু কাঠামো তৈরি করতে শুরু করে। তা নিয়ে ফের দুই দেশের মধ্যে তীব্র বিতর্ক শুরু হয়। জার্মানি এবং ফ্রান্স এবার সেই বিতর্ক কাটাতেই উদ্যোগী হয়েছে।

এসজি/জিএইচ (রয়টার্স, ডিপিএ)