1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতারা বৃহস্পতিবার ইউক্রেন ও মলদোভাকে ইইউর সদস্যপদ পেতে ‘আনুষ্ঠানিক প্রার্থী' করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৷ কিছু সংস্কার এনে ইউরোপীয় মানে পৌঁছতে পারলে দেশ দুটি পূর্ণ সদস্য হতে পারবে৷ এতে কয়েক বছর লাগতে পারে৷
ব্রাসেলসে ইইউ বলকান সম্মেলন চলাকালে সদস্যপদের দাবি নিয়ে জড়ো হন সমর্থকরাছবি: Nicolas Landemard/Zuampress/picture alliance

ইইউর প্রার্থিতা পেলো ইউক্রেন, সদস্য হতে লাগবে কয়েক বছর

২৪ জুন ২০২২

ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতারা বৃহস্পতিবার ইউক্রেন ও মলদোভাকে ইইউর সদস্যপদ পেতে ‘আনুষ্ঠানিক প্রার্থী' করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৷ কিছু সংস্কার এনে ইউরোপীয় মানে পৌঁছতে পারলে দেশ দুটি পূর্ণ সদস্য হতে পারবে৷ এতে কয়েক বছর লাগতে পারে৷

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%87%E0%A6%87%E0%A6%89%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%A5%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A6%BE-%E0%A6%AA%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%BE-%E0%A6%87%E0%A6%89%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%A8-%E0%A6%B8%E0%A6%A6%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%AF-%E0%A6%B9%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%97%E0%A6%AC%E0%A7%87-%E0%A6%95%E0%A7%9F%E0%A7%87%E0%A6%95-%E0%A6%AC%E0%A6%9B%E0%A6%B0/a-62247168

ইইউর ২৭টি সদস্যরাষ্ট্রের নেতাদের সঙ্গে আলোচনার পর ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট শার্ল মিশেল এই ঘোষণা দেন৷

২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা শুরুর চার দিনের মাথায় ইইউর সদস্য হতে আবেদন করে ইউক্রেন৷

এরপর ইইউর পক্ষ থেকে ইউক্রেনকে একটি প্রশ্নমালা দেয়া হয়েছিল৷ ইউক্রেন যে উত্তর দিয়েছে তা গত সপ্তাহে অনুমোদন করেছিল ইউরোপীয় কমিশন৷

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি ইইউর সিদ্ধান্তকে ‘অনন্য ও ঐতিহাসিক মুহূর্ত’ বলে স্বাগত জানিয়েছেন৷

মলদোভার প্রেসিডেন্ট মায়া সান্ডু এই সিদ্ধান্ত ‘মলদোভা ও তার নাগরিকদের প্রতি শক্ত সমর্থনের সংকেত' বলে আখ্যায়িত করেছেন৷

জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস টুইট করে দুই দেশকে অভিনন্দন জানিয়েছেন৷

ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ফন ডেয়ার লাইয়েন বলেন, তিনি নিশ্চিত যে ইউক্রেন ও মলদোভা দ্রুত প্রয়োজনীয় সংস্কার বাস্তবায়ন করবে৷ ‘‘আমি নিশ্চিত আমাদের সিদ্ধান্ত আমাদের সবাইকে শক্তিশালী করবে,’’ বলেন তিনি৷

ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট শার্ল মিশেল একে ‘ঐতিহাসিক মুহূর্ত’ বলে আখ্যায়িত করেছেন৷

নর্থ মেসিডোনিয়া, আলবেনিয়া নিয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি

২০০৫ সালে নর্থ মেসিডোনিয়া ও ২০১৪ সালে আলবেনিয়াকে ‘আনুষ্ঠানিক প্রার্থী' করেছিল ইইউ৷ কিন্তু এখন তাদের সদস্য করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি ইইউ নেতারা৷ এতে হতাশা প্রকাশ করেছেন নর্থ মেসিডোনিয়ার প্রধানমন্ত্রী ডিমিটার কোভাচেভস্কি৷ তিনি বলেন, ‘‘যা হয়েছে সেটা ইউরোপীয় ইউনিয়নের বিশ্বাসযোগ্যতার উপর মারাত্মক আঘাত৷’’

জেডএইচ/এসিবি (এপি, এএফপি, ডিপিএ)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Bangladesch |  Chaos am Flughafen Dhaka

বিমানবন্দরে চুরির ঘটনা থামছে না কেন?

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান