ইঁদুর দৌড়ে গুগল প্লাস আর ফেসবুক | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 22.09.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞান পরিবেশ

ইঁদুর দৌড়ে গুগল প্লাস আর ফেসবুক

সার্চ জায়ান্ট গুগল তার সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট গুগল প্লাস সবার জন্য উন্মুক্ত করেছে সম্প্রতি৷ আর তার একেবারে সঙ্গে সঙ্গেই নিজেদের বেশ কয়েকটা ফিচার পরিবর্তন করছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং জায়ান্ট ফেসবুক৷

ঢাকঢোল বাজিয়ে এসে পড়লো গুগস প্রাস

ঢাকঢোল বাজিয়ে এসে পড়লো গুগস প্রাস

এর কারণ একটাই৷ সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট'গুলির মধ্যে নিজের প্রতিপত্তি বজায় রাখা৷ স্বাভাবিকভাবেই, এই মুহূর্তে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট'গুলির মধ্যে ফেসবুকই সবচেয়ে এগিয়ে৷ বিশ্বব্যাপী ফেসবুকের রয়েছে অন্ততপক্ষে ৭৫ কোটি ব্যাবহারকারী৷ জানিয়েছেন ফেসবুকের প্রধান মার্ক জাকারবার্গ স্বয়ং৷ কিন্তু, আজকের এই হাই-টেক যুগে এগিয়ে থাকাটা হয়তো সব সময়ই সাময়িক৷ তাই ১২ সপ্তাহ আগে সার্চ জায়ান্ট গুগল তার আধুনিকতম সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ‘গুগল প্লাস' চালু করার পর থেকে মুখে স্বীকার না করলেও, ফেসবুক যে একটা প্রতিদ্বন্দ্বিতার গন্ধ পাচ্ছিল – তা বলাই বাহুল্য৷

Goolge Plus vs. Facebook Symbolbild NO FLASH

ফেসবুক, গুগল প্লাস নাকি দুটোই? এটাই হল প্রশ্ন

হবে না? মাত্র ১২ সপ্তাহেই যে গুগল প্লাস'এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে আড়াই কোটি৷ বিশ্লেষকরা বলছেন, এই আড়াই কোটি ব্যবহারকারী নিয়েই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং জায়ান্ট ফেসবুকের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামতে চায় গুগল৷ আর সে জন্যই তড়িঘড়ি এহেন সিদ্ধান্ত নিয়েছে গুগল৷ জানাচ্ছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স৷

গত মঙ্গলবার গুগল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে, এখন চাইলেই গুগল প্লাসে যে কেউ সরসারি সাইন আপ বা অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন৷ এতোদিন পর্যন্ত অবশ্য শুধুমাত্র আইটি স্পেশালিস্ট এবং সাংবাদিকদের জন্য গুগল প্লাস'এর এই সেবা উন্মুক্ত ছিল৷ তবে কোনো গুগল প্লাস ব্যাবহারকারীর কাছে থেকে আমন্ত্রণ পেলে, অন্যরাও পেতো গুগল প্লাসে অ্যাকাউন্ট খোলার সম্মতি৷

Netzwelt Neuer Dienst Google+ könnte Facebook Konkurrenz machen

বন্ধুদের নিয়ে ‘দলবাজি’ও করতে দেয় গুগল প্লাস

শোনা যাচ্ছে, গুগল প্লাস সাইটটিকে আরো জনপ্রিয় এবং উন্নত করতে নতুন অনেক ফিচার যোগ করবে সার্চ জায়ান্ট গুগল৷ এই যেমন, তৈরি হবে গুগল প্লাসের একটি ‘বিটা' সংস্করণ৷ এদিকে, সহজে সব কিছু বের করার জন্য গুগল প্লাসের মধ্যেই একটি ‘সার্চ অপশন' যোগ করা হয়েছে ইতিমধ্যেই৷ এতে ব্যবহারকারীর সংখ্যা যে বাড়বে, তাতে ১০০ ভাগ নিশ্চিত গুগল'এর ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ভিক গুন্ডোৎরা৷ এছাড়াও, গুগল প্লাসের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হলো ‘ভিডিও চ্যাটিং'-এর সুবিধা৷ নতুন এই উন্মুক্ত গুগল প্লাসে তাই চালু করে হয়েছে ‘হ্যাংআউট' ফিচার৷ যার মাধ্যমে শুধু যে অনেকের সঙ্গে একসঙ্গে ‘চ্যাট' করা যাবে – তাই নয়, নিজের ‘ডেস্কটপ'টিও শেয়ার করা যাবে অন্যদের সাথে৷

অন্যদিকে, গুগল প্লাস সবার জন্য উন্মুক্ত হওয়ার পরপরই একটি ‘টিকার' চ্যাট কলাম যোগ করেছে ফেসবুক৷ ফেসবুকের প্রডাক্ট ম্যানেজার কিথ শ্যাখ্ট জানিয়েছেন, টিকার'এর মাধ্যমে সদ্য ‘আপডেট' করা মেসেজ নিয়ে চ্যাট করা যাবে সহজেই৷ তবে গুগল'এর ‘হ্যাংআউট' ফিচারটির সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতেই যে টিকার'এর সংযোজন করা হয়েছে – বিশেষজ্ঞদের এহেন যুক্তি পুরোপুরি খণ্ডন করেছেন তিনি৷ শ্যাখ্ট'এর কথায়, অনেকদিন আগে থেকেই এরকম একটা ফিচার তৈরির চেষ্টা করছিল ফেসবুক৷ শুধু তাই নয়, ফেসবুকে বন্ধু নয়, এমন লোকদেরও ‘টুইটার-স্টাইল'-এ মেসেজ পাঠানোর নতুন অপর একটি ফিচার আসতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন কিথ শ্যাখ্ট৷

তবে এই ইঁদুর দৌড়ে আর যাই হোক, মোটের ওপর সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং'এর যে উন্নতি হবে – তা আর বলতে!

প্রতিবেদন: দেবারতি গুহ

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

নির্বাচিত প্রতিবেদন