আড়ত থেকে ফেলা হল ১৫ টন পচা পেঁয়াজ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 16.11.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

আড়ত থেকে ফেলা হল ১৫ টন পচা পেঁয়াজ

একদিকে বাজারে পেঁয়াজের দাম সর্বকালের রেকর্ড ছাড়িয়েছে, অন্যদিকে চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে পচিয়ে ফেলা হয়েছে ১৫ টন পেঁয়াজ৷

দেশের অন্যতম বড় পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে ১৫ টন পচা পেঁয়াজ ফেলে দিয়েছেন আড়তদাররা৷ মসলা মার্কেট হিসেবে খ্যাত হামিদুল্লাহ মার্কেট, চাঁন মিয়া বাজার এবং মধ্যম চাক্তাই এলাকায় এসব পচা পেঁয়াজ ফেলে যান তারা৷ বৃহস্পতিবার রাতে ঘটে এই ঘটনা৷

পরে ময়লার গাড়িতে করে এসব পেঁয়াজ নগরীর বায়েজিদ বোস্তামি থানার আরেফিন নগর এলাকার আবর্জনার ভাগাড়ে নিয়ে ফেলে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন৷

ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে ৩৫ নম্বর বক্সিরহাট ওয়ার্ডের পরিচ্ছন্নতা পরিদর্শক আহমদ ছফা  বলেন, ‘‘বৃহস্পতিবার রাতে হামিদুল্লাহ মার্কেটের ভিতরে ও বাইরে এবং চাঁন মিয়া বাজার ও মধ্যম চাক্তাই এলাকায় এসব পচা পেঁয়াজ ফেলা হয়৷

‘‘ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কাছ থেকে খবর পেয়ে চারটা গাড়িতে করে সেগুলো আরেফিন নগর নিয়ে ফেলে আসি৷ পচা পেঁয়াজ প্রায় ১৫-১৬টন হবে৷’’

হামিদুল্লাহ মার্কেট কাঁচামাল আড়তদার সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. ইদ্রিচ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ‘‘এসব খারাপ পেঁয়াজ মিয়ানমার থেকে আসছে৷ সেখান থেকে আনার সময় বোটের (নৌকা) নিচে পড়ে যেগুলো, সেগুলো পচে যায়৷''

তিনি বলেন, ‘‘এরকম দুই থেকে তিন ট্রাক হবে৷ যেগুলো বিক্রি হয়নি, সেগুলো ফেলে দেওয়া হয় রাতে৷ এরপর আর ফেলা হয়নি৷''

খাতুনগঞ্জে বর্তমানে মিয়ানমার থেকে আনা পেঁয়াজই বিক্রি করা হচ্ছে বলে জানান ইদ্রিচ৷ সেখানে শনিবার পাইকারি পর্যায়েই কেজি প্রতি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ২০০ টাকায়৷

এফএস/এআই (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন