আসাঞ্জের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা বাতিল | বিশ্ব | DW | 19.11.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

সুইডেন

আসাঞ্জের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা বাতিল

উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান আসাঞ্জের বিরুদ্ধে ধর্ষণের তদন্ত বাতিল করেছে সুইডেন৷ দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হওয়ায় এই বিষয়ে আর কোনো পদক্ষেপ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি৷ 

২০১০ সালে সুইডেনে এক সফরের সময় জুলিয়ান আসাঞ্জ ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ করেছিলেন দুই নারী৷ এরপর সুইডেন থেকে ব্রিটেনে চলে যান আসাঞ্জ৷ সুইডেনে বহিঃসমর্পণের ভয়ে ২০১২ সালে লন্ডনে ইকুয়েডর দূতাবাসে পালিয়েছিলেন তিনি৷

নয় বছর পেরিয়ে যাওয়ায় ধর্ষণের অভিযোগের তদন্ত বাতিল করা হয়েছে বলে মঙ্গলবার জানান সুইডেনের প্রসিকিউটর ইভা-ম্যারি পারসন৷ তিনি বলেন, সময়ই এখানে মুখ্য ভূমিকা রেখেছে৷ সময়ের সাথে সাথে মৌখিক প্রমাণগুলোও দুর্বল হয়ে গেছে৷ ভুক্তভোগীরা বিশ্বাসযোগ্য ও নির্ভর করার মতো প্রমাণ হাজির করলেও স্মৃতি স্বাভাবিকভাবেই ফিকে হয়ে যেতে পারে৷

এর আগে গত জুনে সুইডিশ আদালত এই মামলায় আসাঞ্জকে আটক না করার নির্দেশ দিয়েছিল৷ যুক্তরাজ্যের ইকুয়েডর দূতাবাসে প্রায় সাত বছর রাজনৈতিক আশ্রয়ে থাকার পর গত ১১ এপ্রিল আসাঞ্জকে গ্রেপ্তার করে যুক্তরাজ্য পুলিশ৷

এদিকে এই তদন্ত বাতিল ঘোষণা করায় আসাঞ্জকে এখন যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেয়া হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন উইকিলিকসের প্রধান সম্পাদক ক্রিস্টিন হ্রাফনসন৷

এফএস/এসিবি (এপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন