আসল গাড়ির স্বাদ মেটাতে গ্র্যাভিটি রেসার | অন্বেষণ | DW | 29.12.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

আসল গাড়ির স্বাদ মেটাতে গ্র্যাভিটি রেসার

দেখলে মনে হবে পুরানো আমলের ভিন্টেজ গাড়ি, কিন্তু আকারে ছোট৷ গ্র্যাভিটি রেসার নামের এই নকলের সঙ্গে আসলের মিল চোখে পড়ার মতো৷ জার্মানিতে এক ব্যক্তি সৃষ্টির এই কাজে বেশ নাম করেছেন৷

ভিডিও দেখুন 03:51
এখন লাইভ
03:51 মিনিট

জার্মানির গ্র্যাভিটি রেসার

দেখতে সযত্নে সাজিয়ে রাখা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের আগের ভিন্টেজ গাড়ির মতো হলেও আসলে ২০১৭ সালে এই গ্র্যাভিটি রেসার তৈরি করা হয়েছে৷ ইয়ুলিয়া ও কারলটা হাস নামের দুই বোন এই গাড়ির মালিক৷ তাদের মতে, ‘‘শিশু বয়সেই গাড়ির মালিক হতে আমাদের দারুণ লাগে, হোক না সে ছোট গাড়ি৷ তবে গাড়ি চালানোর অনুমতি পেয়ে খুব ভালো লাগে৷ প্রতিবারই মনে হয় নতুন অভিজ্ঞতা৷''

ইঞ্জিন থাকায় গাড়িটির আকর্ষণই আলাদা৷ দুই বোনের এই দুই সিটের গাড়িটি হাতে তৈরি করা হয়েছে, তাই একেবারে অনবদ্য৷ যুদ্ধের আগে ব্রিটেনের ‘লাগন্ডা রেপিয়ে' নামের মডেলের সঙ্গে এর মিল রয়েছে৷ তাদের বাবা ক্রিস্টিয়ান হাস ভিন্টেজ গাড়ির অনুরাগী৷ তিনি চান, ইয়ুলিয়া ও কার্লটা তাঁর এই গাড়ির নেশা চালিয়ে যাক৷

তিনি বলেন, ‘‘আমার অনেক আশা৷ আমি দুই মেয়েকে নিয়ে ভিন্টেজ কার ব়্যালি দেখতে প্রায়ই ন্যুরবুর্গরিং-এ চলে যাই৷ বউয়ের সঙ্গে এমন প্রতিযোগিতায় অংশও নিই৷ মেয়েরাও ভবিষ্যতে বাবার এই হবি চালিয়ে যাবে বলে আমি আশা করি৷''

স্পোর্টস কারের ইতিহাসে বুগাটি ২৪ মডেলের তুলনা কম৷ সেটির প্রতি সম্মান জানাতে বাবা যে গ্র্যাভিটি রেসার আনিয়েছিলেন, দুই মেয়ে সেটি নিয়ে ঝগড়া শুরু করে দেয়৷ তাই বাবা দ্বিতীয় একটি গ্র্যাভিটি রেসার অর্ডার করেছিলেন৷ ১৯৩৮ সালের বেন্টলি মডেলের অবিকল নকল সেটি৷ ক্রিস্টিয়ান হাস বলেন, ‘‘সে কালের আসল গাড়ির মতো করেই এগুলি তৈরি করা হয়েছে৷ কাঠের খাঁচার উপর অ্যালুমিনিয়ামের বডি৷ সব খুঁটিনাটি বিষয়ের প্রতি নজর রেখে যে যত্ন নিয়ে এই গাড়িগুলি তৈরি করা হয়েছে, তা সত্যি অবাক করার মতো৷''

জার্মানির বিবুর্গ শহরের ফ্রাংক বানকোনিন এই সব দামি ভিন্টেজ গাড়ির নকল তৈরি করেন৷ এমন সৃষ্টি সত্ত্বেও তিনি অবশ্য ধনী হতে পারেননি৷ কিন্তু তাঁর কাছে সেটা জরুরিও নয়৷

শিশুদের খুশিভরা দৃষ্টি দেখলেই তিনি সন্তুষ্ট হন৷ ফ্রাংক বলেন, ‘‘এমনটা দেখলেই আমি সত্যি খুশি হই৷ সেই লক্ষ্যেই তো গাড়িগুলি তৈরি করা হয়েছে৷ আমি নিজেও সেগুলি চালাতে ভালবাসি৷ কিন্তু শিশুরাও এমন গাড়ি চালাতে পারলে এবং তাতে মজা পেলে সেটাই আমার সবচেয়ে বড় আনন্দের কারণ৷''

২০১২ সালে ফ্রাংক বানকোনিন-এর গ্রামে গ্র্যাভিটি রেসার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছিল৷ মাত্র ১৬ বছর বয়স থেকেই গাড়ি মেরামতি শুরু করার অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ফ্রাংক একটি গাড়ি তৈরি করেন৷ তবে জায়গার অভাবে সেটিকে বিক্রি করে দিতে হয়৷ অনেকেই আগ্রহ দেখানোর ফলে গ্র্যাভিটি রেসার তৈরি তাঁর বড় শখ হয়ে দাঁড়ায়৷ ফ্রাংক বলেন, ‘‘যুদ্ধের আগের যুগের গাড়ি আমার খুব প্রিয়৷ সব মডেলই বড় সুন্দর৷ কোনো বাছবিছার নেই, সবই ভালো লাগে৷''

ভিন্টেজ গাড়ির আদলে গ্র্যাভিটি রেসার তৈরি করে ফ্রাংক বেশ নাম করেছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘মাথায় এক মৌলিক আইডিয়া থাকে৷ তারপর গাড়ি তৈরির কাজ শুরু করে দিই৷ তৈরির সময়ই গাড়িটি একটা রূপ পেতে থাকে৷ কোনো নির্দিষ্ট পরিকল্পনা থাকে না৷ শেষ পর্যন্ত কেমন দেখতে হবে, সেই ছবিটা মাথায় থাকে৷ তারপর ঠিক সেইমতো এগোতে হয়৷''

তাঁর তৈরি প্রতিটি গ্র্যাভিটি রেসার অনবদ্য৷ কাঠের পাতের উপর কাঠের খাঁচা বসিয়ে কাজ শুরু হয়৷ তিনি আসল ভিন্টেজ গাড়ির হুবহু নকল তৈরি করে তাক লাগিয়ে দেন৷

রেগিনা নিডেনৎসু/এসবি

প্রতিবেদনটি নিয়ে আপনার কোনো মন্তব্য থাকলে লিখুন নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

বিজ্ঞাপন