আরববিশ্ব জুড়ে অস্থিরতা অব্যাহত | বিশ্ব | DW | 04.04.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আরববিশ্ব জুড়ে অস্থিরতা অব্যাহত

যুদ্ধ বিরতির জন্য কূটনৈতিক সমাধানকে বেছে নিলো গাদ্দাফি প্রশাসন৷ সেই লক্ষ্যে, লিবীয় সরকার রবিবার গ্রিসে পাঠিয়েছে উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদেলাতি ওবাইদিকে৷

default

অন্যদিকে, ইয়েমেনে প্রেসিডেন্ট আলি আব্দুল্লাহ সালেহ'এর পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভে আবারো গুলি চালিয়েছে পুলিশ৷

গাদ্দাফি বাহিনী এবং বিদ্রোহীদের মধ্যে যুদ্ধে লিবিয়া জুড়ে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে৷ তেল সমৃদ্ধ শহর ব্রেগার দখল নিয়ে এখনও তীব্র যুদ্ধ চলেছে গাদ্দাফির সেনা এবং বিদ্রোহীদের মধ্যে৷ এ অবস্থায় লিবিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওবাইদি গ্রিসের প্রধানমন্ত্রী জর্জ পাপানদ্রেয়াউকে বলেছেন গাদ্দাফি যুদ্ধের অবসান চান৷

আবার মুয়াম্মর গাদ্দাফির অপসারণ চাইছেন তাঁরই দুই ছেলে৷ সাংবিধানিক গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য তাঁরা তাঁদের পিতার ক্ষমতার পরিবর্তনের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন৷ ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস'এর বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি বলেছে, গাদ্দাফির দুই ছেলে তাঁদের পিতাকে ছাড়াই লিবিয়ার পরিবর্তনের দিকে অগ্রসর হতে চান৷ তবে গাদ্দাফির ছেলেদের এই প্রস্তাবকে নাকচ করে দিয়েছে বিদ্রোহীরা৷ সোমবার বিক্ষোভকারীদের জাতীয় পরিবর্তনকামী পরিষদ সর্বসম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ যেকোনো ধরণের কূটনৈতিক মধ্যস্থতা করার আগেই গাদ্দাফি ও তাঁর ছেলেদের দেশ ছেড়ে যেতে হবে৷

Jemen Demonstrationen Proteste April 2011

ইয়েমেনে পুলিশের ছোঁড়া বুলেট এবং কাঁদানে গ্যাসে আহত বিক্ষোভকারীরা

অন্যদিকে, ইটালির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ইটালির তেল গ্রুপের প্রধান ইনি পাউলো দু'দিন আগে বেনগাজী সফর করেছেন৷ এবং সেখানে লিবিয়ার বিদ্রোহীদের আন্দোলনে শক্তিখাতে সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা করেছেন৷

এদিকে, ইয়েমেনের রাজধানী সানার দক্ষিণ দিকের শহর তায়িজে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে কমপক্ষে ১২ জন নিহত হয়েছে৷ তিজ শহরে গুলিতে কমপক্ষে ১২ জন নিহত ছাড়াও ৩০জন আহত হয়েছে৷ তাদের মধ্যে ১৬ জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স৷ এছাড়া, বার্তা সংস্থা এএফপি হাসপাতাল সূত্রের বরাত দিয়ে নিহতের সংখ্যা ১৫ জন বলে জানিয়েছে৷

Jemen Demonstration gegen die Regierung in Sanaa

অপরদিকে, হুদাইদা শহরে পুলিশের ছোঁড়া বুলেট এবং কাঁদানে গ্যাসে আহত হয়েছে শতশত বিক্ষোভকারী৷ বার্তা সংস্থাগুলোকে একথা জানিয়েছে সেদেশের চিকিৎসকরা৷ সোমবার হুদাইদা শহরে সরকার বিরোধীদের একটি দল বিক্ষোভ প্রদর্শন করে প্রেসিডেন্টের প্রাসাদের দিকে এগোতে থাকে৷ সেসময় বিক্ষোভকারীরা পুলিশের এই দমন অভিযানের শিকার হয়৷ গত কয়েক সপ্তাহ ধরে প্রেসিডেন্ট আলী আব্দুল্লাহ সালেহ'এর ৩২ বছরের শাসন অবসানের দাবি জানিয়ে আসছেন বিক্ষোভকারীরা৷ সালেহ দীর্ঘ দিন ধরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন পেয়ে আসছিলো৷ কিন্তু ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস'এর একটি প্রতিবেদনে এখন বলা হচ্ছে যে, প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রশাসন মনে করে সালেহ'এর উচিত অন্তর্বর্তী সরকারের হাতে ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়া৷ তবে সালেহ এখনও পদত্যাগ করতে রাজি হননি৷ বরং নিরপত্তাবাহিনীকে ব্যবহার করে বিক্ষোভকারীদের ওপর দমন নিপীড়ন চালাচ্ছেন তিনি৷

এর আগে রবিবার ইয়েমেনে বিক্ষোভকারীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে অন্ততঃ ২ জন নিহত এবং শতাধিক মানুষ আহত হয়৷ এ নিয়ে প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শনকালে কমপক্ষে ৫২ জন নিহত এবং কয়েকশ বিক্ষোভকারী আহত হয়েছে বলে খবর৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন