1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
Frau mit Kopftuch auf einer Strasse in Deutschland Viele moslemische Frauen beschäftigen sich auch mit der Frage, warum sie ein Kopftuch tragen sollen. Bild wurde von DW-Praktikantin Benish Ali Bhat in November 2011 in Bonn gemacht.
জার্মানিতে হিজাব পরিহিত নারীছবি: DW

নারী অধিকার

২৪ ডিসেম্বর ২০১১

অনেক মুসলিম নারী নিজের ইচ্ছাতেই মাথায় হিজাব পরেন৷ কিন্তু কোনো প্রথা অনুসরণ করতে বাধ্য করা আর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত নেয়ার মধ্যে সীমারেখা টানবে কে?

https://p.dw.com/p/13Y6U

সমকামীদের সম্পর্কে এখন বলা হয়, তাদের অনুভূতি প্রকাশে কোনো বাধা থাকা উচিত নয়৷ কিন্তু কেউ যদি বলে, আমরা আমাদের ধর্মের রীতি নীতিও প্রকাশ করতে চাই, তাহলে সবাই এক বাক্যে ‘না' বলে উঠবে৷ কয়েক বছর আগে ফ্রান্স ও ইউরোপের আরো কয়েকটি দেশে হিজাব পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার পর এটা ছিল সারাহ বেনখেরা-এর উত্তর৷ আলজেরীয় বংশোদ্ভূত এক জার্মান তরুণী সারাহ৷ পরেন খিমার, এক ধরনের আপাদ মস্তক ঢাকা কোট৷

সারার বান্ধবীদের অবশ্য তার সঙ্গে বন শহরের সুপার মার্কেটে ঘুরে বেড়াতে কোনো অসুবিধা হয়না৷ সদ্য ২০ পার হওয়া আর দশটা মেয়ের মতই জিনস ও পুলওভার পরা মেয়ে তারা৷

ইউরোপের বহু দেশের আইন কানুনে কিন্তু পোশাক আশাকের ব্যাপারে এই ধরনের সহনশীলতা প্রকাশ পায় না৷ ফ্রান্সে হিজাব পরা নিষেধ করা হয়েছে, এই কারণ দেখিয়ে যে, এই প্রথা মেয়েদের দমন করার বহিঃপ্রকাশ৷ জার্মানিতে স্কুলে ও অন্যান্য কিছু প্রতিষ্ঠানে হিজাব পরা নিষেধ করা হয়েছে৷ সম্প্রতি বেলজিয়ামে আইন প্রণয়নের জন্য একটি বিল আনা হয়েছে, যাতে প্রকাশ্য স্থানে হিজাব পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারির কথা বলা হয়েছে৷

ইউরোপীয় সরকাররা এ ক্ষেত্রে যুক্তি দেখান এই বলে যে, হিজাব পরার মাধ্যমে ইউরোপীয় সমাজ ও সংস্কৃতিতে সম্পৃক্ততার প্রতি অনীহাই প্রকাশ পায়৷ আসল কথা হল, অনেক ইউরোপীয় হিজাবকে বিরক্তিকর মনে করেন৷

তুর্কি বংশোদ্ভূত জার্মান তরুণী সাদিয়া বিলিচিও লক্ষ্য করেছেন যে, হিজাব তাঁর জন্য প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করেছে৷ তিনি বলেন, ‘‘হ্যাঁ আমি জার্মানিতে কোনো চাকরি খুঁজে পাইনি৷ অনেক জার্মান প্রশ্ন করেছেন, কেন আমি হিজাব পরি৷''

Bild 1 Titel: Kopftuch Bauern im Nordiran mit ihren traditionellen bunten Kopftüchern Copyright: ©FARS
ফাইল ছবিছবি: FARS

সব মুসলিম নারীই যে হিজাব পরার পক্ষে তা নয়৷ ডয়চে ভেলের সাংবাদিক পারওয়ানে আলিজাদা মনে করেন, ইসলাম বলেছে কোনটা সঠিক, কোনটা নয়৷ হিজাব পরা বা না পরা একান্তই তাঁর সিদ্ধান্ত৷ কোনো কিছুতেই ধর্ম তাঁকে বাধ্য করেনি৷

আত্নপরিচিতির প্রশ্ন

সারাহ জানায়, সে পরিবারের বিরুদ্ধে অনেকটা বিদ্রোহ করে খিমার পরার সিদ্ধান্ত নেয়৷ তার এই পোশাক তাকে পরিপূর্ণ করে তোলে৷ সারাহর ভাষায়, ‘‘আমি আমার জীবনের অর্থ নিয়ে চিন্তা ভাবনা শুরু করি৷ তারপর প্রার্থনা শুরু করি, আমার মনে হতে থাকে, কী যেন হারিয়ে যাচ্ছে৷ সেই থেকে আমি খিমার পরা শুরু করি৷'' সারাহ আত্মপোলব্ধি থেকে খিমার পরা শুরু করলেও হিজাব পরা সব মেয়ের ক্ষেত্রেই এই কথা প্রযোজ্য নয়৷

সাদিয়া বিলিচিকে হিজাব সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে কয়েক মুহূর্ত চিন্তা করেন তিনি৷ সাদিয়া তুর্কি বংশোদ্ভূত, ১৩ বছর ধরে জার্মানিতে বসবাস করছেন৷ তাঁর পরিবার সারাহর পরিবারের মত নয়৷ সাদিয়ার পরিবারের সব মেয়েই হিজাব পরেন৷ অবশ্য তিনি জানান, নিজের ইচ্ছাতেই হিজাব পরছেন তিনি, পরিবার তাঁকে বাধ্য করেনি৷

হিজাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা?

জার্মানিতে জন্ম নেয়া আরেক মুসলিম মেয়ে জানান, তিনি হিজাব পরেন, যেহেতু এটি আল্লাহর আইন এবং সব মুসলিম মেয়ের এই আইন মেনে চলা উচিত৷ হিজাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হলে জার্মানিতে বসবাস করতে চাননা তিনি৷ তাঁর ভাষায়, ‘‘এরকম হলে আমি জার্মানি বা ইউরোপে থাকবনা৷ জার্মানি ছেড়ে আমি এমন কোনো দেশে যাব, যেখানে আমার হিজাব পরার অধিকার থাকবে৷''

শুধু পশ্চিমের দেশগুলিতেই হিজাব বিতর্কিত বিষয় নয়৷ নয়া দিল্লির জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতার ছাত্রী উজমা ফালাকও হিজাব পরা নিয়ে নানা প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছেন৷ হিজাব শব্দটি বহু অপব্যবহৃত শব্দ৷ তিনি লক্ষ্য করেছেন, ‘‘বন্ধু বান্ধব ও সমাজের অন্যান্যরা হিজাব নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন৷ ভিন্ন সংস্কৃতির কোনো মানুষের সঙ্গে দেখা হলে তারা অদ্ভুতভাবে তাকায়, প্রশ্ন করে কেন আমি এটা পরি, কেউ কেউ শুধুই কৌতূহলী হয়৷''

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে হিজাব সম্পর্কে কোনো আইন নেই৷ শ্রীনগরের জম্মু ও কাশ্মীর ব্যাংকের শাকিরা নবি বলেন, ‘‘হিজাব এমন একটা জিনিস, যা পরতে বা না পরতে কেউ বলেনা৷ এটা তোমার জীবন, তুমিই সিদ্ধান্ত নেবে হিজাবের ব্যাপারে কী করবে৷''

হিজাব নিয়ে উভয় সংকট

বন ইউনিভার্সিটির ইসলামিক স্টাডিজের প্রফেসর সাবিনে ডামির গাইল্সডর্ফ এ কথা সমর্থন করে বলেন, ‘‘বিশ্বের কোন কোন অঞ্চলে হিজাব পরায় গুরুত্ব দেয়া হয়৷ আরব দেশগুলিতে হিজাব পরা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার৷ কিন্তু এটা ভয়ংকর, যখন মেয়েদের হিজাব পরতে বাধ্য করা হয়৷ তবে একথাবলা যায়না যে, সব সময় পুরুষরা, পরিবার বা সমাজই মেয়েদের হিজাব পরতে বাধ্য করে৷''

বার্লিনের ফ্রি ইউনিভার্সিটির শিক্ষিকা ড. শিরিন আমির মোয়াজামি মনে করেন, জার্মানি ও ফ্রান্সের মত ধর্ম নিরেপেক্ষ দেশে নিজেদের ধর্মীয় সত্তাটা প্রকাশ করার জন্যই অনেক মেয়ে হিজাব পরেন৷

অন্যদিকে গাইলসডর্ফের মতে, হিজাব পরা মানেই নিপীড়ন বা ধর্মীয় চরমপন্থা বোঝায় না৷ তবে কিছু বাস্তব অসুবিধার কথা তুলে ধরেন তিনি৷ তাঁর ভাষায়, ‘‘ইউরোপীয় দেশগুলির সরকারদের এক্ষেত্রে কিছু কিছু অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়৷ একদিকে তারা আইনগত কারণে স্কুলে ধর্ম নিরেপক্ষতা বজায় রাখতে চান, অন্যদিকে অনেক মেয়েই হিজাব পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করায় পড়াশোনা বন্ধ করে দিতে পারে৷''

জার্মানিতে হিজাব পরা নিষেধ করার ব্যাপারে সারাহ বেনখেরা-র এখন পর্যন্ত উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই৷ তবে হিজাব বিদ্রোহের জন্য কিছু মূল্য তাকে দিতে হয়েছে৷ স্বতঃস্ফূর্তভাবে কোনো পার্টিতে যেতে পারেনা সে৷ এর জন্য আফসোস নেই সারাহর মনে, ছোটখাট আনন্দের চেয়ে আত্ম-অনুসন্ধান তার কাছে অনেক বড়৷

প্রতিবেদন: বেনিশ আলি ভাট/ রায়হানা বেগম

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

স্কিপ নেক্সট সেকশন এই বিষয়ে আরো তথ্য

এই বিষয়ে আরো তথ্য

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

গতবছর বেসরকারিভাবে হজের খরচ পড়েছিল ৫ লাখ ২২ হাজার ৭৪৪ টাকা। সেই হিসাবে এ বছর খরচ বাড়ছে প্রায় দেড় লাখ টাকা

হজযাত্রীদের মাথায় এবার খরচের আরো বিশাল বোঝা

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান