আবারো পারমাণবিক পরীক্ষার হুমকি দিল উত্তর কোরিয়া | বিশ্ব | DW | 24.01.2013
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

আবারো পারমাণবিক পরীক্ষার হুমকি দিল উত্তর কোরিয়া

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে তৃতীয়বার পারমাণবিক পরীক্ষা এবং আরো রকেট নিক্ষেপের হুমকি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া৷ জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ সেদেশের উপর নিষেধাজ্ঞার পরিমাণ বাড়ানোর পর এই হুমকি দিল কমিউনিস্ট দেশটি৷

উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ সামরিক কর্তৃপক্ষ বৃহস্পতিবার জানিয়েছে যে, তৃতীয়বার পারমাণবিক পরীক্ষা চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা৷ একইসঙ্গে গত মঙ্গলবার পিয়ংইয়ংয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা বাড়ানোর যে সিদ্ধান্ত জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ গ্রহণ করেছে, তাকে ‘অবৈধ' আখ্যা দিয়েছে দেশটির সামরিক কর্তৃপক্ষ৷

কোরিয়ার কেন্দ্রীয় সংবাদ সংস্থাকে জাতীয় প্রতিরক্ষা কমিশন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘‘আমরা এটা গোপন করছি না, যে আমরা অনেক স্যাটেলাইট এবং দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা অব্যাহত রাখবো এবং একটি উচ্চ মাত্রার পারমাণবিক পরীক্ষাও চালানো হবে, যেগুলোর লক্ষ্য আমাদের আপোশহীন দুশমন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র৷''

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার জাতিসংঘের ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদ উত্তর কোরিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞার পরিধি আরো বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়৷ মূলত গত ডিসেম্বরে পিয়ংইয়ং অবৈধভাবে দূরপাল্লার রকেট নিক্ষেপ করার প্রতিক্রিয়ায় এই নিষেধাজ্ঞা বাড়ানো হয়৷ এমনকি, সেদেশের ঘনিষ্ঠ মিত্র খ্যাত চীনও এই নিষেধাজ্ঞার পক্ষে ভোট দিয়েছে৷

Nordkorea Missile Tests

অস্ত্রসম্ভার দেখিয়ে গোটা অঞ্চলকে ত্রাসের মধ্যে রাখতে চায় উত্তর কোরিয়া

উত্তর কোরিয়ার প্রতিরক্ষা কমিশন এই বিষয়ে জানিয়েছে, ‘‘আমরা নিরাপত্তা পরিষদের সকল অবৈধ এবং বেআইনি সিদ্ধান্ত খণ্ডন করছি৷''

ঠিক কবে নাগাদ তৃতীয়বার পারমাণবিক পরীক্ষা চালানো হবে, তা অবশ্য জানায়নি উত্তর কোরিয়া৷ এর আগে ২০০৬ এবং ২০০৯ সালে পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা করেছিল সেদেশ৷ দক্ষিণ কোরিয়ার এক গোয়েন্দা কর্মকর্তার বরাতে ইয়নহপ সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, ‘‘তৃতীয়বার পারমাণবিক পরীক্ষার জন্য কারিগরি ভাবে প্রস্তুত আছে পিয়ংইয়ং৷ এখন শীর্ষ নেতা কিম জং-উনের অনুমতি পেলে কয়েকদিনের মধ্যেই এই পরীক্ষা চালানো হতে পারে৷''

এদিকে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর কোরিয়া বিষয়ক শীর্ষ দূত জানিয়েছেন, উত্তর কোরিয়া কি করবে সেটা তাদের ব্যাপার, তবে এ ধরনের পদক্ষেপ উত্তেজনা বাড়াতে পারে৷

দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সৌলে অবস্থানরত গিলান ডেভিস বলেন, ‘‘আমরা আশা করছি তারা এটা করবে না৷ আমরা এটা না করার জন্য তাদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি৷'' পিয়ংইয়ংয়ের বিবৃতির প্রেক্ষিতি তিনি আরো বলেন, ‘‘কোরিয়া উপদ্বীপে উত্তেজনা বাড়ানোর জন্য এটা সঠিক সময় নয়৷''

এআই/ডিজি (এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন