আফগানিস্তান সেনা-তালেবান সংঘর্ষ, বহু হতাহত | বিশ্ব | DW | 22.09.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

আফগানিস্তান

আফগানিস্তান সেনা-তালেবান সংঘর্ষ, বহু হতাহত

শান্তি আলোচনা চলার মধ্যেই ভয়ঙ্কর রক্তাক্ত সংঘর্ষ আফগানিস্তানে। তালেবান ও সেনার মধ্যে সংঘর্ষ। হতাহত বহু।

এক সপ্তাহ আগে কাতারে শান্তি আলোচনায় বসেছেন সরকারপক্ষ ও তালেবান নেতারা। তার মধ্যেই আফগানিস্তানে অশান্তি। রোববার সারারাত ধরে নিরাপত্তা বাহিনী এবং তালেবানের সংঘর্ষ হয়েছে। মারা গেছেন অন্ততপক্ষে ৫৭ জন নিরাপত্তা কর্মী এবং ৮০ জন তালেবান। আহত বহু।

এর মধ্যে উরুজগান প্রদেশেই ২৪ জন নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মী মারা গেছেন। সেখানে একটি চেক পোস্টে আক্রমণঁ চালায় তালেবান। শুধু উরুজগানেই নয়, আফগানিস্তানের বিভিন্ন প্রদেশে সংঘর্ষ হয়েছে। তিনজন আফগান গোয়েন্দাকেও অপহরণ করেছে তালেবান

নিজেদের ক্ষয়ক্ষতির কথা জানায়নি তালেবান। তবে সেনা ও সরকারি মুখপাত্ররা জানিয়েছেন, সবমিলিয়ে অন্ততপক্ষে ৮০ জন তালেবান মারা গেছেন। এর মধ্যে কুন্দুজ, তাখার, বাঘলান প্রদেশে ৫৪ জন মারা গেছেন বলে সেনা মুখপাত্র জানিয়েছেন।

শুধু সেনা বা নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মীরাই নয়, তালেবানের আক্রমণে প্রচুর সাধারণ মানুষ মারা গেছেন বলে অভ্যন্তরীণ মন্ত্রকের মুখপাত্র জানিয়েছেন। তাঁর হিসাব, গত দুই সপ্তাহে তালেবান হানায় দেশের ২৪টি প্রদেশে ৯৮ জন সাধারণ মানুষ মারা গেছেন। আহত হয়েছেন প্রায় ২৫০ জন।

কিন্তু কাতারে গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে সরকার ও তালেবানের মধ্যে শান্তি আলোচনা চলছে। তার মধ্যে এই ধরনের রক্তাক্ত সংঘর্ষ কেন? আসলে দুই পক্ষ নিয়মিত আলোচনা করলেও তা খুব বেশি এগোয়নি। এখনো তারা বিরোধের মূল বিষয়গুলিতে ঢুকতেই পারেনি। কথা হচ্ছে পদ্ধতিগত নিয়ম-কানুন নিয়ে। এই অবস্থায় শক্তিপ্রদর্শন ও চাপ দেয়ার জন্যই আফগানিস্তচান জুড়ে সংঘর্ষ হয়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

জিএইচ/এসজি(রয়টার্স, এএফপি)

বিজ্ঞাপন